বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ফের পেনাল্টি মিস সুনীলের, আবারও হারল বেঙ্গালুরু, জিতে লিগ টেবলের শীর্ষে মুম্বই
সুনীলের পেনাল্টি সেভ করেন মুম্বইয়ের কিপার মহম্মদ নওয়াজ।
সুনীলের পেনাল্টি সেভ করেন মুম্বইয়ের কিপার মহম্মদ নওয়াজ।

ফের পেনাল্টি মিস সুনীলের, আবারও হারল বেঙ্গালুরু, জিতে লিগ টেবলের শীর্ষে মুম্বই

  • বিরতিতে ম্যাচের ফল ছিল ১-১। তবে সুনীল যদি পেনাল্টিটা মিস না করতেন, তবে বিরতির আগেই ২-১ এগিয়ে যেতে পারত বেঙ্গালুরু। সেক্ষেত্রে হয়তো খেলার ফলও অন্য রকম হতে পারত। কিন্তু সে রকম কিছুই ঘটল না। উল্টে বিরতির পর আরও ২ গোল হজম করতে হয় বেঙ্গালুরুকে।

সুনীল ছেত্রীর পেনাল্টি মিস, আর সেই সঙ্গে ১-৩ হারটা যেন আইএসএলে বেঙ্গালুরু এফসি-র গতানুগতিক ধারা হয়ে গিয়েছে। শনিবার আইএসএলে ওড়িশা এফসি বনাম বেঙ্গালুরু এফসি ম্যাচেরই যেন রিপিড টেলিকাস্ট হল। শুধু ওড়িশা এফসি-র জায়গায় দলটি হয়ে গিয়েছিল মুম্বই সিটি এফসি। সেই একই ভাবে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে সুনীল ছেত্রী পেনাল্টি মিস করলেন। আর ওড়িশার বিরুদ্ধে যেমন বেঙ্গালুরু ১-৩ হেরেছিল, এ দিন মুম্বই সিটি এফসি-র কাছে সেই ১-৩-ই হারলেন সুনীল ছেত্রীরা। এতে নিঃসন্দেহে চাপ বাড়ল বেঙ্গালুরুর উপর।

বিরতিতে ম্যাচের ফল ছিল ১-১। তবে সুনীল যদি পেনাল্টিটা মিস না করতেন, তবে বিরতির আগেই ২-১ এগিয়ে যেতে পারত বেঙ্গালুরু। সেক্ষেত্রে হয়তো খেলার ফলও অন্য রকম হতে পারত। কিন্তু সে রকম কিছুই ঘটল না। উল্টে বিরতির পর আরও ২ গোল হজম করতে হয় বেঙ্গালুরুকে। এদিকে এটিকে মোহনবাগানের পর শনিবার বেঙ্গালুুরুকে হারিয়ে আইএসএল তালিকার শীর্ষে উঠে এল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। আর ৪ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে সাতে নেমে এল বেঙ্গালুরু।

এ দিনের ম্যাচের প্রথমার্ধটা বেশ টানটান উত্তেজনার ছিল। দুই দলই গোলের জন্য শুরু থেকেই মরিয়া ছিল। ৮ মিনিটের মাথায় মুর্তাদা ফলের সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ে গিয়ে অ্যালান কোস্টার হাতে বল লাগলে, পেনাল্টি পায় মুম্বই সিটি এফসি। ইগর আঙ্গুলো পেনাল্টি থেকে গোল করে মুম্বই সিটি এফসিকে ১-০ এগিয়ে দেন। কিন্তু এই গোলের ১১ মিনিটের মধ্যে অর্থাৎ ম্যাচের ২০ মিনিটের মাথায় ক্লেইটন সিলভা সেট পিস থেকে গোল করে বেঙ্গালুরুর হয়ে সমতা ফেরান। প্রথমার্ধে দুই দলই হাই প্রেসিং ফুটবল খেলতে থাকায় একাধিক গোলের সুযোগ তৈরি হয়েছিল। 

এমন কী বিরতির আগে বেঙ্গালুরু পেনাল্টিও পায়। মন্দার দেশাই পেনাল্টি বক্সের মধ্যে এডমান্ড লালরিনডিকাকে ফাউল করে বসেন। স্বাভাবিক ভাবেই পেনাল্টি পায় বেঙ্গালুরু। কিন্তু পেনাল্টি থেকে গোল করার সুবর্ণ সুযোগটি নষ্ট করেন বেঙ্গালুরু অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী। চলতি আইএসএলে এ ই নিয়ে দ্বিতীয় বার পেনাল্টি মিস করলেন ছেত্রী। ডান হাত দিয়ে বিশ্বমানের সেভ করেন মহম্মদ নওয়াজ। প্রথমার্ধে খেলার শেষ হয় ১-১-এ।

দ্বিতীয়ার্ধেও বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করেও কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয় বেঙ্গালুরু। উল্টে ৫৪ মিনিটে মুম্বই সিটি এফসিকে এগিয়ে দেন মুর্তাদা ফল। আর ম্যাচের ৮৫ মিনিটের বেঙ্গালুরুর কফিনে শেষ পেরেকটি পোঁতেন ইগর কাতাতাউ। মুম্বই সিটিকে ৩-১ এগিয়ে দিয়ে বেঙ্গালুরুর লড়াই শেষ করে দেন ইগর। এর পর আর গোলেপ মুখ খুলতে পারেনি সুনীল ছেত্রীর টিম।

বন্ধ করুন