বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs SA: আর কখনও টেস্টে সুযোগ পাব না ভেবেছিলাম, বন্ধুর কাছে স্বীকারোক্তি রাহুলের
মায়াঙ্ক আগরওয়ালের সঙ্গে আলোচনায় মত্ত লোকেশ রাহুল। ছবি- বিসিসিআই।
মায়াঙ্ক আগরওয়ালের সঙ্গে আলোচনায় মত্ত লোকেশ রাহুল। ছবি- বিসিসিআই।

IND vs SA: আর কখনও টেস্টে সুযোগ পাব না ভেবেছিলাম, বন্ধুর কাছে স্বীকারোক্তি রাহুলের

  • ভারতের হয়ে ৪০টি টেস্ট ম্যাচে ৩৫.১৬-র গড়ে রাহুল মোট ২৩২১ রান করেছেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ শুরু হতে বাকি আর মাত্র কয়েক ঘন্টা। তারপরেই রামধনুর দেশে প্রথম সিরিজ জয়ের লক্ষ্যে ময়দানে নেমে পড়বে টিম ইন্ডিয়া। দলে রোহিত শর্মার অনুপস্থিতিতে ওপেনার হিসেবে তো বটেই, দলের সহ-অধিনায়ক হিসেবেও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব থাকবে লোকেশ রাহুলের কাঁধে। তবে তিনি নাকি টেস্ট দলে সুযোগ পাওয়া নিয়েও কিছুদিন আগে পর্যন্ত সংশয়ে ছিলেন।

রাহুল ২০১৪ সালে টেস্টে অভিষেক ঘটানোর পর লাল বলের ক্রিকেটে ভারতীয় দলে নিজের জায়গা পাকা করতে পারেননি। বেশ কয়েকবার দলের ভিতরে বাইরে হতে হয়েছে তাঁকে। ২০১৮ সালের পর বহুদিন দলে সুযোগই পাননি তিনি। তবে ইংল্যান্ড সফরে বন্ধু ও বহুদিনের সতীর্থ মায়াঙ্ক আগরওয়ালের চোটই তাঁর জন্য জাতীয় দলের দরজা পুনরায় খুলে দেয়। বিলেতে আট ইনিংসে ৩১৫ রান করে দলে নিজের জাকা পাকা করে নেন রাহুল। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে দলের সহ-অধিনায়ক তো বটেই ভবিষ্যৎ-র অধিনায়ক হিসেবেও তাঁকে দেখা হচ্ছে।

কিন্তু বহুদিন টেস্টে সুযোগ না পেয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে লাল বলের ক্রিকেটে আর কোনোদিন তিনি সুযোগ পাবেন কি না, সেই নিয়েই সংশয় ছিল রাহুলের। বিসিসিআইয়ের শেয়ার করা এক ভিডিয়োয় মায়াঙ্কের সঙ্গে কথোপকথনের সময় রাহুল জানান, ‘ছয়-সাত মাস বা বছরখানেক আগেও আমি ভাবতেই পারিনি যে আমি আবার টেস্ট খেলার সুযোগ পাব। তবে সবকিছুই খুব দ্রুত পরিবর্তিত হয়েছে এবং আমি খুবই খুশি ও গর্বিত যে আমার ওপর এই সফরের জন্য সহ-অধিনায়কত্বের এত বড় দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। নিজের সেরাটা দেওয়ার জন্য আমি মুখিয়ে রয়েছি।’ প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে সিডনির পর সেঞ্চুরিয়ানেই সম্ভবত প্রথমবার রাহুল ও মায়াঙ্ক আবার ভারতীয় দলের হয়ে একসঙ্গে ওপেন করবেন।

বন্ধ করুন