বাংলা নিউজ > ময়দান > ডাহা ফেল SRH, কিন্তু ভারতীয় দলের কোচ হতে আগ্রহী টম মুডি-রিপোর্ট
টম মুডি। ছবি- টুইটার।
টম মুডি। ছবি- টুইটার।

ডাহা ফেল SRH, কিন্তু ভারতীয় দলের কোচ হতে আগ্রহী টম মুডি-রিপোর্ট

  • ২০১৭ এবং ২০১৯ সালে তিনি ভারতীয় দলের কোচের শর্টলিস্টে থাকলেও অবশেষে আর কোচ হতে পারেননি।

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরই ভারতীয় দলের সঙ্গে কোচ রবি শাস্ত্রীর চুক্তি শেষ হচ্ছে। শাস্ত্রী পরবর্তী জামানায় ভারতীয় দলের কোচের ভূমিকায় রাহুল দ্রাবিড় থেকে অনিল কুম্বলে, ভিভিএস লক্ষ্মণ, একাধিক তারকার নাম শোনা যাচ্ছে। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন ২০০৭ সালে শ্রীলঙ্কাকে বিশ্বকাপ ফাইনালে নিয়ে যাওয়া টম মুডি।

মুডির কোচিং কেরিয়ার বেশ চমকপ্রদ। শ্রীলঙ্কাকে ফাইনালে নিয়ে যাওয়ার পাশপাশি সানরাইজার্স হায়দরাবাদও তাঁর কোচিংয়ে ২০১৬ সালে আইপিএলের খেতাব জেতে। আইপিএলের সৌজন্যে মুডি ভারতীয় ক্রিকেট এবং ক্রিকেটারদের বিষয়ে বেশ অবগত। বর্তমানে তিনি সানরাইজার্স ডিরেক্টর অফ ক্রিকেট পদে আসীন। তবে Foxsports.com.au -র এক সদ্য রিপোর্ট অনুযায়ী, মুডি ভারতীয় দলের কোচ হওয়ায় ভীষণ আগ্রহী। বহুদিন ধরেই মুডির মধ্যে টিম ইন্ডিয়ার কোচ হওয়ার আশা বিদ্যমান। ২০১৭ এবং ২০১৯ সালে তিনি জাতীয় দলের কোচের শর্টলিস্টে থাকলেও অবশেষে আর কোচ হতে পারেননি। তবে এবার তাঁর সেই আক্ষেপ মিটতে পারে।

মুডির সিদ্ধান্তের জেরেই এ বছর আইপিএলের মাঝপথে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অধিনায়ক পদ থেকে ডেভিড ওয়ার্নারকে সরানো হয়। তারকাখচিত ভারতীয় দলকে সামলানোর জন্য শক্তিশালী ব্যক্তিত্বের প্রয়োজন এবং মুডির এই সিদ্ধান্ত সেটাই প্রমাণ করে। সম্প্রতি PTI এক রিপোর্টে দাবি করে অনিল কুম্বলে এবং লক্ষ্মণকে ভারতীয় বোর্ড কোচের পদে মনোনয়ন জমা দেওয়ার আহ্বান জানায়। মুডি এবং লক্ষ্মণ বহুদিন ধরেই হায়দরাবাদে একসঙ্গে কাজ করছেন। ফলে তাঁরা দুই জনেই যদি ভিন্ন পদে ভারতীয় দলের দায়িত্ব নেন, তাহলে বোঝাপড়ার অসুবিধা হবে না।

রিপোর্ট অনুযায়ী সানরাইজার্স কর্তাদের বিসিসিআইয়ের অন্দরে বেশ শক্তিশালী দখল রয়েছে, যা মুডির মদত করবে। এমনকী ভারতীয় বোর্ডের একাংশের নির্দেশেই নাকি আইপিএলের শেষ কয়েক ম্যাচে সানরাইজার্স তরুণদের দলে সুযোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বলে কানাঘুষো। মুডিকে অবশেষে ভারতীয় জাতীয় দলের ডাগআউটে দেখা যায় কি না, সেটার জবাব কিছুদিন পরেই পাওয়া যাবে।

বন্ধ করুন