বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2023 > RCB vs LSG: দিন তিনেক আগে ফ্যাফের রেকর্ড ভেঙেছিলেন রাহুল, মঙ্গলে হল শোধবোধ

RCB vs LSG: দিন তিনেক আগে ফ্যাফের রেকর্ড ভেঙেছিলেন রাহুল, মঙ্গলে হল শোধবোধ

ফ্যাফ ডু'প্লেসি।

ফ্যাফ এ দিন ৬৪ বলে ৯৬ রান করেন। এটাই আইপিএলের ইতিহাসে ১০০তম ইনিংসে সর্বোচ্চ স্কোর। লখনউয়ের বিরুদ্ধে এ দিন দুরন্ত খেলে দলকে ১৮১ রানে পৌঁছতেও সাহায্য করেন ফ্যাফ ডু'প্লেসি।

একেবারে যেন উলট পুরাণ। ১০০তম ম্যাচে ফ্যাফ ডু'প্লেসির রেকর্ড ভেঙে নয়া নজির তৈরি করেছিলেন কেএল রাহুল। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে তিনি অপরাজিত ১০৩ রান করে ১০০তম ম্যাচে সর্বোচ্চ স্কোরের রেকর্ড গড়েন রাহুল। আর আজ মঙ্গলবার রাহুলের টিম লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিরুদ্ধে তার শোধ নিলেন ফ্যাফ। এ দিন আইএপিএলের ১০০তম ইনিংস খেলতে নেমেছিলেন আরসিবি অধিনায়ক। আর এই ১০০তম ইনিংসে তিনি সর্বোচ্চ করে করে ফেললেন।

ফ্যাফ এ দিন ৬৪ বলে ৯৬ রান করেন। এটাই আইপিএলের ইতিহাসে ১০০তম ইনিংসে সর্বোচ্চ স্কোর। লখনউয়ের বিরুদ্ধে এ দিন দুরন্ত খেলে দলকে ১৮১ রানে পৌঁছতেও সাহায্য করেন ফ্যাফ ডু'প্লেসি।

এ দিন লখনউ সুপার জায়ান্টস অধিনায়ক কেএল রাহুল টসে জিতে আরসিবি-কে ব্যাট করতে পাঠায়। প্রথমে ব্যাট করতে নেমেই পরপর দু'টো বড় ধাক্কা খায় ব্যাঙ্গালোর। দলের ৭ রানের মাথায় অনুজ রাওয়াতের উইকেট হারায় তারা। প্রথম ওভারের পঞ্চম বলেই ৪ করে (৫ বল) দুষমন্ত চামেরার বলে রাহুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন অনুজ। এর পর তিনে ব্যাট করতে আসলে প্রথম বলেই আউট হন কোহলি। দুষমন্তের ওভারের শেষ বলে দীপক হুডার হাতে ক্যাচ দেন কোহলি। লজ্জার গোল্ডেন ডাক করে তাঁকে সাজঘরে ফিরতে হয়।

আরও পড়ুন: ফের গোল্ডেন ডাক, এই নিয়ে কতবার এমন লজ্জার নজির হল কোহলির?

প্রথম ওভারেই ২ উইকেট হারিয়ে যখন মারাত্মক চাপে আরসিবি, তখন ঠাণ্ডা মাথায় দলের হাল ধরেন ফ্যাফ ডু'প্লেসি। একদিকে উইকেট পড়তে থাকলেও, ফ্যাফ কিন্তু দাঁতে দাঁত চেপে ক্রিজ আঁকড়ে লড়াই করতে থাকেন। কোহলি আউট হলে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল নামেন। শুরুটা খারাপ করেননি ম্যাক্সি। কিন্তু ১১ বলে ২৩ করেই সাজঘরে ফিরতে হয় তাঁকে। এর পর ৯ বলে ১০ রান করে সুয়াশ প্রভুদেশাইও আউট হন। শাহবাজ আহমেদ অবশ্য ২২ বলে ২৬ করে কিছুটা লড়াই করার চেষ্টা করেছিলেন। তবে তিনিও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। ফ্যাফ যদি ৬৪ বলে ৯৬ রান না করতেন, তবে আরসিবি লড়াই করার মতো পুঁজিই সংগ্রহ করতে পারত না।

এ দিকে মাত্র ৪ রানের জন্য এ দিন সেঞ্চুরি মিস করেন ফ্যাফ। ইনিংসের একেবারে শেষে ১৯.৫ ওভারে জেসন হোল্ডারের বলে মার্কাস স্টোইনিসের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। সেঞ্চুরি না হওয়ার আফসোসটা নিঃসন্দেহে থাকবে ফ্যাফের। এ দিকে একেবারে শেষের দিকে দীনেশ কার্তিক ৮ বলে অপরাজিত ১৩ রান করে কিছুটা সঙ্গত করার চেষ্টা করেছিলেন আরসিবি অধিনায়ককে।

বন্ধ করুন