বাংলা নিউজ > ময়দান > 'কীভাবে ম্যাচ জিততে হবে, জানি', বাংলাদেশ-আফগানিস্তান হারিয়েই হুঙ্কার শ্রীলঙ্কার
শ্রীলঙ্কার জয়

'কীভাবে ম্যাচ জিততে হবে, জানি', বাংলাদেশ-আফগানিস্তান হারিয়েই হুঙ্কার শ্রীলঙ্কার

  • শানাকা আরও যোগ করেন ‘আমি টসেও বিষয়টা নিশ্চিত করেছি যে পার্টনারশিপ খুব গুরুত্বপূর্ণ। যে কোনও ম্যাচ জেতার ক্ষেত্রে এই পার্টনারশিপ জরুরি। আমরা নিজেদের মধ্যেও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছে।’

শুভব্রত মুখার্জি: শনিবারেই চলতি এশিয়া কাপের সুপার ফোর পর্যায় শুরু হয়েছে। আর প্রথম ম্যাচেই হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের সাক্ষী থেকেছে ক্রিকেট ভক্তরা। ক্রিকেটের নবতম শক্তিধর দেশ আফগানিস্তান দলের বিরুদ্ধে রীতিমতো লড়াই করে জিততে হয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে লঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকা জানিয়ে দিলেন তারা আত্মবিশ্বাসী ছিলেন এই ধরনের উইকেটে যেকোন রান তাড়া করার ক্ষেত্রে।

দাসুন শানাকার ম্যাচ শেষে মন্তব্য 'এটা (আফগানিস্তান ম্যাচে জয়) হল ড্রেসিংরুমের বিশ্বাস। আমরা বিশ্বাস করেছিলাম, আত্মবিশ্বাসী ছিলাম এই উইকেটে যে কোনও রান তাড়া করার ক্ষেত্রে। আমরা যখন রান তাড়া করছি তখন সবসময় আমরা উইকেটটা ভালো করে বিশ্লেষণ করে নিতে পারা। এই ম্যাচে আসার আগে আমাদের নির্দিষ্ট একটা পরিকল্পনা ছিল। আমরা জানতাম ওদের বেশ কিছু ভালো ব্যাটার রয়েছে। তবে ছেলেরা আমাদের পরিকল্পনার দুর্দান্ত বাস্তবায়ন করেছেন।'

শানাকা আরও যোগ করেন 'আমি টসেও বিষয়টা নিশ্চিত করেছি যে পার্টনারশিপ খুব গুরুত্বপূর্ণ। যে কোনও ম্যাচ জেতার ক্ষেত্রে এই পার্টনারশিপ জরুরি। আমরা নিজেদের মধ্যেও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছে। এখন আমরা এটা জানি যে কোনও ম্যাচে কীভাবে অ্যাপ্রোচ করতে হবে। ম্যাচ জিততে হবে।' এদিন প্রথমে ব্যাট করে ৬ উইকেটে ১৭৫ রান করে আফগানিস্তান। রহমানুল্লাহ গুরবাজ করেন ৪৫ বলে বলে ৮৪ রান। তার অনবদ্য ইনিংসে ভর করেই বিশাল স্কোর খাড়া করে আফগানিস্তান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৫ বল বাকি থাকতে ৪ উইকেটে ম্যাচ জিতে যায় শ্রীলঙ্কা দল। পাথুম নিশঙ্ক ৩৫, কুশল মেন্ডিস ৩৬, দানুষ্কা গুনাতিলকা ৩৩ এবং ভানুকা রাজাপক্ষ ৩১ রান করে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন।

বন্ধ করুন