বাংলা নিউজ > ময়দান > Vijay Hazare Trophy: ২৮ বলে ৭৭, চার-ছক্কায় এসেছে ৭০ রান, IPL নিলামের আগে ব্যাট হাতে ঝড় তুললেন স্যামসনের সতীর্থ

Vijay Hazare Trophy: ২৮ বলে ৭৭, চার-ছক্কায় এসেছে ৭০ রান, IPL নিলামের আগে ব্যাট হাতে ঝড় তুললেন স্যামসনের সতীর্থ

রোহন কুন্নুমাল। ছবি- বিসিসিআই।

Kerala vs Arunachal Pradesh Vijay Hazare Trophy: রোহিতের হাফ-সেঞ্চুরিতেও লজ্জার হার তাঁর দলের। ঘরোয়া ক্রিকেটে রোহনের সাম্প্রতিক ফর্ম অবাক করবে নিশ্চিত।

আইপিএল নিলামের আগে বিজয় হাজারে ট্রফিতে ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে নজর কাড়লেন রোহন কুন্নুমাল। কেরলের তরুণ ক্রিকেটারের বড় শট নেওয়ার দক্ষতাই আলাদা করে চোখ টানছে সকলের।

আলুরে অরুণাচলপ্রদেশের বিরুদ্ধে বিজয় হাজারে ট্রফির ম্যাচে মাত্র ২১ বলে ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন রোহন। অর্ধশতরানে পৌঁছনোর পথে তিনি ১০টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন। অর্থাৎ, পঞ্চাশ রানের মধ্যে ৪৬ রান আসে চার-ছক্কা থেকে।

শেষমেশ ২৮ বলে ৭৭ রান করে অপরাজিত থাকেন কেরলের ওপেনার। তিনি চার মারেন ১৩টি এবং ছক্কা হাঁকান ৩টি। সুতরাং, রোহন ৭০ রান সংগ্রহ করেন চার-ছক্কা মেরে। কেরল ১০.৩ ওভারেই ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে।

এলিট সি-গ্রুপের ম্যাচে টস জিতে শুরুতে ব্যাট করতে নামে অরুণাচলপ্রদেশ। তারা ২৯.৩ ওভারে মাত্র ১০২ রানে অল-আউট হয়ে যায়। ৫৯ রান করেন অমরেশ রোহিত। বাকিরা কেউই দু'অঙ্কের রানে পৌঁছতে পারেননি। অরুণাচলের বাকি দশজন ব্যাটসম্যানের ব্যক্তিগত রান সংখ্যা পাশাপাশি রাখলে (৬,৩,০,১,০,২,০,৪,০,২) মোবাইল নম্বর মনে হওয়াই স্বাভাবিক। অরুণাচল নো-ওয়াইড বাবদ ২৫ রান অতিরিক্ত পায় বলেই ১০০ রানের গণ্ডি টপকাতে সক্ষম হয়।

আরও পড়ুন:- ২০টি চার ও ৯টি ছক্কায় একাই ২০০ সৌরাষ্ট্র ওপেনারের, জাদেজা একাই নিলেন ৭টি উইকেট, অবিশ্বাস্য জয় পূজারাদের

জবাবে ব্যাট করতে নেমে কেরল ৬৩ বলে (১০.৩ ওভারে) ১ উইকেটের বিনিময়ে ১০৫ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায়। ২৩৭ বল বাকি থাকতে ৯ উইকেটে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে তারা।

রোহন শুধু এই ম্যাচেই নয়, বরং বেশ কিছুদিন ধরেই ঘরোয়া ক্রিকেটে অত্যন্ত ধারাবাহিক। বিশেষ করে রঞ্জি ও দলীপ ট্রফিতে তাঁর পারফর্ম্যান্স ছিল দুর্দান্ত। দলীপের ২টি ম্যাচের চারটি ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে তিনি টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৪৪ রান সংগ্রহ করেন। সেঞ্চুরি করেন ১টি এবং হাফ-সেঞ্চুরি করেন ২টি।

আরও পড়ুন:- Vijay Hazare Trophy: ফের হাফ-সেঞ্চুরি বিরাটের, ব্যাট হাতে টানা দু'ম্যাচে জেতালেন দলকে

তার আগে রঞ্জি ট্রফির ৩ ম্যাচের ৪টি ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে রোহন ১৩৯.০০ গড়ে দলের হয়ে সব থেকে বেশি ৪১৭ রান সংগ্রহ করেন। সঞ্জু স্যামসনের রাজ্যদলের সতীর্থ রঞ্জিতে সেঞ্চুরি করেন ৩টি ও হাফ-সেঞ্চুরি করেন ১টি। সুতরাং, রঞ্জি ও দলীপ ট্রফি মিলিয়ে ৮টি ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে তিনি ৪টি সেঞ্চুরি ও ৩টি হাফ-সেঞ্চুরি করেন। পরে সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফিতেও ১টি অর্ধশতরান-সহ ১৩৪.০০ স্ট্রাইক-রেটে ২০১ রান করেন রোহন।

বন্ধ করুন