বাংলা নিউজ > ময়দান > কেন মুম্বই টেস্টে নিউজিল্যান্ডকে ফলো-অন দেয়নি ভারত? উত্তর দিলেন দীনেশ কার্তিক
মুম্বই টেস্টে চালকের আসনে টিম ইন্ডিয়া (ছবি:বিসিসিআই)
মুম্বই টেস্টে চালকের আসনে টিম ইন্ডিয়া (ছবি:বিসিসিআই)

কেন মুম্বই টেস্টে নিউজিল্যান্ডকে ফলো-অন দেয়নি ভারত? উত্তর দিলেন দীনেশ কার্তিক

  • ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির কাছে নিউজিল্যান্ডকে ফলো-অন দিয়ে আবার ব্যাট করার এবং সিরিজ দখলের জন্য তাড়াতাড়ি ম্যাচ শেষ করার একটি ভালো সুযোগ ছিল। কিন্তু বিরাট ফলো অনের সিদ্ধান্ত নেন নি।

বড় লিড থাকা সত্ত্বেও কেন নিউজিল্যান্ডকে ফলো অন দেয়নি ভারত? এই প্রশ্নটা ভারত বনাম নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনেও মুম্বইয়ের আকাশে শোনা গেল। বিশেষজ্ঞরা আগেই এর কারণ নিজেদের মতো ব্যাখ্যা করেছিলেন এবার সেই তালিকায় যুক্ত হল নতুন নাম। কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রাক্তন অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক ব্যাখ্যা করলেন এর অন্যতম কারণ। টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতীয় দল নিজেদের দখল আরও মজবুত করেছে। প্রথম ইনিংসে টিম ইন্ডিয়ার ৩২৫ রানের জবাবে কিউয়িরা মাত্র ৬২ রানে অল আউট হয়ে যায়। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির কাছে নিউজিল্যান্ডকে ফলো-অন দিয়ে আবার ব্যাট করার এবং সিরিজ দখলের জন্য তাড়াতাড়ি ম্যাচ শেষ করার একটি ভালো সুযোগ ছিল। কিন্তু বিরাট ফলো অনের সিদ্ধান্ত নেন নি। 

টিম ইন্ডিয়ার উইকেটরক্ষক ব্যাটার দীনেশ কার্তিক এই সিদ্ধান্তের পিছনে বড় কারণটি ব্যাখ্যা করলেন। তিনি বলেন, ‘আমার মতে আপনাকে বুঝতে হবে যে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর এখনও আসেনি। আপনি যদি মাত্র তিন বা চার দিনে এই টেস্ট ম্যাচ জেতেন, আপনি অতিরিক্ত পয়েন্ট পাবেন না। আমি মনে করি আপনি যত বেশি ব্যাট করবেন, উইকেট তত খারাপ হবে। তাই দ্বিতীয় ইনিংসে নিউজিল্যান্ডকে তাড়াতাড়ি আউট করা ভারতের পক্ষে সহজ হবে।’

দীনেশ কার্তিক এই প্রসঙ্গে আরও বলেছেন যে, ‘এখন টিম ইন্ডিয়ার ব্যাট করার সুযোগ রয়েছে, তারা এই ম্যাচে অনেক এগিয়ে এবং তাদের যথেষ্ট রান রয়েছে। তবে টিম ইন্ডিয়া এই ম্যাচটিকে দীর্ঘায়িত করার চেষ্টা করছে এবং নিশ্চিত করছে যে দলের সমস্ত মৌলিক ত্রুটিগুলি ঠিক করা। আমি নিশ্চিত, দল চাইবে চেতেশ্বর পূজারা কিছু রান করুক, বিরাট কোহলি ব্যাট করার সুযোগ পেলে তারও কিছু রান করা উচিত। এটা দলের বোলারদের বিশ্রাম দেওয়ার কথা নয়। আমার মতে, ম্যাচের আর মাত্র তিন দিন বাকি থাকায় ঘোষণার কোনো তাড়াহুড়ো নেই তাদের।’

বন্ধ করুন