বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সুব্রত বক্সি, অনুব্রত মণ্ডলকে ফোন করেছিল বিজেপি, তার পর কী হল? জানালেন খোদ মমতা
কোচবিহার রাসমেলা ময়দানের জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক
কোচবিহার রাসমেলা ময়দানের জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক

সুব্রত বক্সি, অনুব্রত মণ্ডলকে ফোন করেছিল বিজেপি, তার পর কী হল? জানালেন খোদ মমতা

  • এ ব্যাপারে সংবাদমাধ্যম কিছুই জানে না বলে এদিন দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, বিজেপি যা করছে তা ‘‌শুনলে লজ্জা পাবেন’‌। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কটাক্ষ, ‘‌একটা দলের রাজ্য সভাপতিকে ফোন করে ফেলছে। চিন্তা করে দেখুন, কতটা ভয়ানক বিজেপি!‌’‌

ভাল ‘‌অফার’‌ দিয়ে বাম, কংগ্রেস, বিজেপি নেতাদের শাসকদলে আনার চেষ্টা করছেন প্রশান্ত কিশোর ও তাঁর সংস্থা ‘‌আইপ্যাক’‌। বারবার বিরোধীরা এই একই অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল ও ভোট কুশলী পিকে–র বিরুদ্ধে। কিন্তু এবার একই অভিযোগ বিজেপি–র বিরুদ্ধে তুললেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার কোচবিহারের জনসভায় তিনি দাবি করেন, সুব্রত বক্সি ও অনুব্রত মণ্ডলের সঙ্গে ‘‌বসার’‌ চেষ্টা করছে বিজেপি।

তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি। তাঁকেও নাকি বিজেপি ফোন করে দলে টানার চেষ্টা করছে। বুধবার গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ তুলেছেন মমতা। বিজেপি–র চক্ষুলজ্জাও নেই বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‌‘‌কোথায় গেছে বুঝুন বিজেপি। সামান্য লজ্জা, ভদ্রতা বা সৌজন্যতাও নেই। সুব্রত বক্সিকে ফোন করেছিল। ফোন করে বলছে, দাদা আপনার সঙ্গে কথা আছে। আপনার সাথে বসব। কত বড় সাহস।’‌

বিজেপি–র নজরে রয়েছে বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি দাপুটে নেতা অনুব্রত মণ্ডলও। মমতা জানান, মঙ্গলবারই তাঁকে ফোন করে বিজেপি। এ ব্যাপারে দলনেত্রী বলছিলেন, ‘‌‌মঙ্গলবার আমাকে বীরভূম থেকে কেষ্ট (‌অনুব্রত মণ্ডল) ফোন করেছিল। বলল, দিদি জানেন, আমাকে দিল্লির একটা নেতা ফোন করছে। ফোন করে আমার সঙ্গে বসার কথা বলছে।’‌ ফোনে তার পাল্টাও দিয়েছেন ‘‌বীরভূমের কেষ্ট’‌। মমতার কথায়, ‘‌তখন অনুব্রত উত্তর দিয়েছে, আমি তোমার সঙ্গে কেন বসব?‌ আমি তো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল করি। আমি তৃণমূল করি। আমি তোমার সঙ্গে কেন বসতে যাব?‌’‌

এ ব্যাপারে সংবাদমাধ্যম কিছুই জানে না বলে এদিন দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, বিজেপি যা করছে তা ‘‌শুনলে লজ্জা পাবেন’‌। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কটাক্ষ, ‘‌একটা দলের রাজ্য সভাপতিকে ফোন করে ফেলছে। চিন্তা করে দেখুন, কতটা ভয়ানক বিজেপি!‌’‌

বন্ধ করুন