বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'ডায়মন্ডহারবার আজ যা ভাবে বাংলা কাল তা ভাবে' Diamond Model-এর কথা বললেন অভিষেক
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক @AbhishekBanerjeeOfficial)
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক @AbhishekBanerjeeOfficial)

'ডায়মন্ডহারবার আজ যা ভাবে বাংলা কাল তা ভাবে' Diamond Model-এর কথা বললেন অভিষেক

অভিষেক জানিয়েছেন,সেল্ফ টেস্টিং কিটের মাধ্যমে আমরা ৩০ হাজারের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ৫০ হাজারে পৌঁছেছিলাম। ১২ পারসেন্ট পজিটিভিটি রেটকে আমরা সাতদিনে সেটা ২ পারসেন্টে নিয়ে এসেছিলাম। সেজন্য বহু চর্চিত, বহু আলোচিত ডায়মন্ড মডেল শুরু হয়েছে। 

‘ডায়মন্ডহারবার আজ যা ভাবে বাংলা কাল সেকথা ভাবে।’ পৈলানে এসপি অফিসের উদ্বোধনে এসে একথা জানিয়ে দিলেন সাংসদ তথা তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকী কোভিড তাড়াতে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ডায়মন্ড মডেলকে কপি করা হয়েছিল বলেও দাবি করেন অভিষেক। সেল্ফ টেস্টিং কিটে একদিনে ৫০ হাজার করোনা পরীক্ষা করে রেকর্ড করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এখানে এসপি অফিস তৈরি হয়েছে। ডায়মন্ডহারবারেই প্রথম সিসি ক্যামেরায় নজরদারি শুরু হয়েছিল। বর্তমানে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে এই ব্যবস্থা রয়েছে। একথা বলতেই পারি, ডায়মন্ডহারবার আজ যা ভাবে গোটা বাংলা কাল তা ভাবে। পাশাপাশি করোনা মোকাবিলায় ডায়মন্ড মডেলকে গোটা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অনুকরণ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। করোনা পরীক্ষায় কীভাবে রেকর্ড গড়েছিল ডায়মন্ডহারবার সেকথাও তুলে ধরেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি জানিয়েছেন, 'সেল্ফ টেস্টিং কিটের মাধ্যমে আমরা ৩০ হাজারের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ৫০ হাজারে পৌঁছেছিলাম। ১২ পারসেন্ট পজিটিভিটি রেটকে আমরা সাতদিনে ২ পারসেন্টে নিয়ে এসেছিলাম। সেজন্য বহু চর্চিত, বহু আলোচিত ডায়মন্ড মডেল শুরু হয়েছে। বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে নয়, ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে তারা এই ডায়মন্ড মডেলকে কপি করেছে। অবলম্বন করেছে। যার ফলে কোভিডের পজিটিভিটি রেট কমতে সহায়তা করেছে। আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। কোভিড এখনও যায়নি। যে কোনও মুহূর্তে কোভিডের ঢেউ আছড়ে পড়তে পারে। আমাদের মাস্ক পরে থাকতে হবে। আমাদের আনন্দ যেন অপরের নিরানন্দের কারণ না হয় সেটা নিশ্চিত করতে হবে।'

বন্ধ করুন