বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মারাত্মক গরম, কলকাতার রাস্তায় পড়ে ছটফট করছিলেন যুবক… কিছুক্ষণেই সব শেষ
প্রচন্ড গরমে কলকাতার রাস্তায় লোকজনও কিছুটা কম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)
প্রচন্ড গরমে কলকাতার রাস্তায় লোকজনও কিছুটা কম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)

মারাত্মক গরম, কলকাতার রাস্তায় পড়ে ছটফট করছিলেন যুবক… কিছুক্ষণেই সব শেষ

  • স্থানীয়দের দাবি, ওই যুবক নেশা করতেন অনেকেই ভেবেছিলেন হয়তো মদের নেশায় এইভাবে শুয়ে রয়েছে। তবে শেষ পর্যন্ত এদিন আর ওঠেনি ওই যুবক। পরে বোঝা যায় ওই যুবক মারা গিয়েছেন। তবে তার পরিচয় ঠিকঠাক জানা যায়নি।

প্রচন্ড গরম। রোদের তাপে রাস্তার পিচও গলতে শুরু করেছে। রাস্তায় লোকজনের আনাগোনাও ক্রমে কমছে। তবে পেটের টানে যাঁদের না বেরোলেই নয়, তাদের বেরোতে হচ্ছে। দক্ষিণ কলকাতার পূর্বালোক এলাকায় সেই প্রচন্ড রোদের মধ্যেই রাস্তায় বেরিয়েছিলেন এক যুবক। দুপুরের দিকে পূর্বালোক কালিবাড়ির কাছে স্থানীয়রা দেখেন রাস্তাতেই পড়ে ছটফট করছে ওই যুবক। 

এদিকে স্থানীয়দের দাবি, ওই যুবক নেশা করতেন অনেকেই ভেবেছিলেন হয়তো মদের নেশায় এইভাবে শুয়ে রয়েছে। তবে শেষ পর্যন্ত এদিন আর ওঠেনি ওই যুবক। পরে বোঝা যায় ওই যুবক মারা গিয়েছেন। তবে তার পরিচয় ঠিকঠাক জানা যায়নি। তবে স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, ওই যুবক নিয়মিত নেশা করতেন। এলাকার ভ্যাট থেকে প্লাস্টিকের বোতল সহ নানা সামগ্রী কুড়িয়ে বিক্রি করতেন। এদিনও তিনি সেই কারণেই রাস্তায়ে বেরিয়েছিলেন। পেটের টানে রাস্তায়ে বেরিয়েই করুণ পরিণতি হল যুবকের। 

তবে সরকারিভাবে গরমের কারণে সানস্ট্রোকে কারোর মৃত্যুর কোনও খবর নেই। তবে স্থানীয় রিকশ চালকরা জানিয়েছেন, ওই যুবক দিনের বেশির ভাগ সময়ই নেশাগ্রস্ত অবস্থায় থাকতেন। এদিনও সম্ভবত মদ খেয়ে ছিলেন। তার উপর প্রচন্ড রোদ। সব মিলিয়ে তার প্রাণ গিয়েছে। এদিকে ওই যুবক পুলিশকর্মীদেরও মুখ চেনা। তবে তার বাড়ি ঠিক কোথায় তা কেউ বলতে পারছেন না। তার পরিবারের খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

বন্ধ করুন