বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পঞ্চম শ্রেণি থেকে কবিতা লিখি, ছবি আঁকার টাকা আমার অ্যাকাউন্টে জমা পড়েনি: মমতা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পঞ্চম শ্রেণি থেকে কবিতা লিখি, ছবি আঁকার টাকা আমার অ্যাকাউন্টে জমা পড়েনি: মমতা

  • বিরোধীদের আক্রমণ করে মমতা বলেন, ‘আমাকে নিয়ে ব্যঙ্গ করে অনেক সোশ্যাল নেটওয়ার্কে, ইউটিউবে সিপিএম করে, কংগ্রেস করে, বিজেপি করে। অনেক বাঁদরামো করে। চূড়া...ন্ত।

পঞ্চম শ্রেণি থেকে কবিতা লেখা শুরু করেন তিনি। তাই শিশুদের জন্য কবিতা কী ভাবে লিখতে হয় তা তাঁর জানা। এমনই দাবি করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে তাঁর কবিতাকে বিদ্রুপ করায় আক্রমণ করলেন বাম – বিজেপি - কংগ্রেসকে।

বুধবার নবান্নে মমতা তাঁর সৃজনশীলতাকে বিদ্রুপ করায় ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘মমতা ব্যানার্জি বই লিখলে খুব হিংসে হয়? হাম্বা রাম্বা নিয়ে আমাকে ইনসাল্ট করেন। বাচ্ছারা কী বোঝে? বাচ্ছাদের বইগুলো এরকমই হয়। বাচ্ছাদের সঙ্গে মিশতে গেলে শিশুমন নিয়ে জন্মাতে হয়। মনটা শিশুর মতো হবে। তা নইলে আপনি লিখবেন কী করে? আয় বৃষ্টি ঝেঁপে, ধান দেব মেপে। খোকা ঘুমাল পাড়া জুড়াল বর্গি এল দেশে। এসব কবিতাগুলো এজন্যই লেখা হয়েছিল। আমি কারও দয়ায় এসব করি না। আমি ক্লাস পঞ্চম শ্রেণি থেকেই লিখি’।

সরকারি জমি দখল করে মমতাদের সম্পত্তি? বুলডোজারের কথা বললেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী

বিরোধীদের আক্রমণ করে মমতা বলেন, ‘আমাকে নিয়ে ব্যঙ্গ করে অনেক সোশ্যাল নেটওয়ার্কে, ইউটিউবে সিপিএম করে, কংগ্রেস করে, বিজেপি করে। অনেক বাঁদরামো করে। চূড়া...ন্ত। কিন্তু তারা বাঁদরামি করে বলে আমি করব না। তার কারণ, আমি যদি একটা ছবি আঁকি আপনার আপত্তি কী? আপনিও আঁকুন না। আমি আপনাকে উৎসাহিত করব। আমি তো শিখিনি। হাতে কলম পড়লে আমি কী করতে পারি? হাতে তুলি পড়লে আমি কী করতে পারি’?

মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, ‘আর এজন্য আমি পয়সা নিই না। এক পয়সা আজ পর্যন্ত আমার অ্যাকাউন্টে জমা পড়েনি। যা পেন্টিং করেছিলাম, ২ বার একজিবিশন করেছিলাম। সবটাই দিয়ে দিয়েছি। এমনকী ১ কোটি তো রাজ্য সরকারকেই দিয়ে দিয়েছি। ২০ লক্ষ টাকা তো রাজ্যপালকে দিয়ে দিয়েছি। কয়েক লক্ষ টাকা স্প্যাস্টিক সোসাইটিকে দিয়ে দিয়েছি। কই সেগুলো তো বলেন না’?

 

বন্ধ করুন