বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Smart bin in Kolkata: প্লাস্টিক বর্জ্য পুনর্ব্যবহারের সমস্যার সমাধানে শহরে বসল স্মার্ট বিন

Smart bin in Kolkata: প্লাস্টিক বর্জ্য পুনর্ব্যবহারের সমস্যার সমাধানে শহরে বসল স্মার্ট বিন

প্লাস্টিক বর্জ্য পুনর্ব্যবহারের জন্য শহরে বসল স্মার্ট বিন। প্রতীকী ছবি : রয়টার্স  (REUTERS)

বোতলের মতো আকৃতির এই বিনগুলিকে চুরির হাত থেকে রক্ষা করার জন্য জিও–ট্যাগ এবং জিও–ফেনস করা হবে। এই বিনে রয়েছে সেন্সর। যার ফলে বিনটি কতটা ভর্তি হয়েছে তা বোঝা যাবে। এদিন উদ্বোধনের সময় ফিরহাদ বলেন, ‘আমরা প্লাস্টিক বর্জ্যের পুনর্ব্যবহারের সমাধান খুঁজছিলাম।’

প্লাস্টিক বর্জ্য পুনর্ব্যবহারের সমস্যার সমাধান করতে শহরে চালু হল স্মার্ট বিন। মঙ্গলবার কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম এই স্মার্ট বিন চালু করেছেন। এই স্মার্ট বিনের সাহায্যে প্লাস্টিক বোতলের পুনর্ব্যবহার করা যাবে। সেগুলি দিয়ে তৈরি করা হবে জল রাখার ২০ লিটারের জার। ফিরহাদ হাকিম ছাড়াও এদিন স্মার্ট বিন উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল মন্ত্রী শশী পাঁজা।

বোতলের মতো আকৃতির এই বিনগুলিকে চুরির হাত থেকে রক্ষা করার জন্য জিও–ট্যাগ এবং জিও–ফেনস করা হবে। এই বিনে রয়েছে সেন্সর। যার ফলে বিনটি কতটা ভর্তি হয়েছে তা বোঝা যাবে। এদিন উদ্বোধনের সময় ফিরহাদ বলেন, ‘আমরা প্লাস্টিক বর্জ্যের পুনর্ব্যবহারের সমাধান খুঁজছিলাম। এখন আমরা মনে করি যে এই সমস্যার সমাধানে আমাদের প্রযুক্তির প্রয়োজন রয়েছে।’ ওয়েস্ট বেঙ্গল ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান রাজীব সিনহা বলেন, 'প্লাস্টিক কোনও সমস্যা নয়, কিন্তু এর বর্জ্য ব্যবস্থাপনা। আমরা সঠিকভাবে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা করতে ব্যর্থ হয়েছি। আমরা আশা করি, বিনগুলো আমাদের প্লাস্টিক বর্জ্যমুক্ত শহরে নিয়ে যাবে। এই উদ্যোগটি প্লাস্টিক বর্জ্য পুনর্ব্যবহারের সমস্যাও সমাধান করবে, যা অত্যন্ত প্রশংসনীয়।’

পশ্চিমবঙ্গ দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের চেয়ারম্যান কল্যাণ রুদ্র বলেছেন, ‘মাইক্রোপ্লাস্টিক আমাদের খাদ্য শৃঙ্খলে, আমাদের রক্তপ্রবাহে প্রবেশ করছে এবং এটি আমাদের জীবনকে ধ্বংস করছে।’ ম্যাগপেট পলিমার প্রাইভেট লিমিটেড দ্বারা তৈরি সেন্সর যুক্ত এই স্মার্ট বিন প্লাস্টিক বর্জ্য পুনর্ব্যবহারকে আরও সুগম করবে বলে মনে করছেন ফিরহাদ। শহর জুড়ে এমন ১ হাজারটি বিন বসানোর পরিকল্পনা নিয়েছে পুরসভা।

মন্ত্রী শশী পাঁজাও এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের জন্যও একটি আনন্দদায়ক বিস্ময় ছিল যখন ম্যাগপেট পলিমার প্রাইভেট লিমিটেডের তরফে ব্যাখ্যা করা হয়েছিল যে এটি কীভাবে কাজ করবে। এটি খুবই ভালো উদ্যোগ। ম্যাগপেট পলিমার প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেবেন্দ্র সুরানা বলেন, ‘ভারতের পরিস্থিতি এবং ব্যবহারকারীদের কথা মাথায় রেখে বিনটি বিশেষভাবে ডিজাইন করা হয়েছে। বিনগুলিতে অনেকেই থুঁতু বা পিক ফেলে থাকেন। তাই আমরা বিনের উচ্চতা ৫ ফুট ৮ ইঞ্চি করেছি। আগামী দুই মাসের মধ্যে কলকাতা জুড়ে এই স্মার্ট বিনগুলি বসানো হবে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন