বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কেন রাজ্যের সব পুরসভায় একসঙ্গে ভোট নয়? হাইকোর্টে হলফনামা দিয়ে জানাল কমিশন
ইভিএম পর্যাপ্ত নেই। ফলে রাজ্যে একসঙ্গে সব পুরসভায় ভোট করানো সম্ভব নয়। কলকাতা হাইকোর্টে হলফনামা দিয়ে এই কথাই জানিয়ে দিল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)
ইভিএম পর্যাপ্ত নেই। ফলে রাজ্যে একসঙ্গে সব পুরসভায় ভোট করানো সম্ভব নয়। কলকাতা হাইকোর্টে হলফনামা দিয়ে এই কথাই জানিয়ে দিল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

কেন রাজ্যের সব পুরসভায় একসঙ্গে ভোট নয়? হাইকোর্টে হলফনামা দিয়ে জানাল কমিশন

বিজেপির তরফে রাজ্যে সব পুরসভায় একসঙ্গে ভোট করানোর দাবি তোলা হয়েছে।

ইভিএম পর্যাপ্ত নেই। ফলে রাজ্যে একসঙ্গে সব পুরসভায় ভোট করানো সম্ভব নয়। কলকাতা হাইকোর্টে হলফনামা দিয়ে এই কথাই জানিয়ে দিল রাজ্য নির্বাচন কমিশন।

হলফনামায় রাজ্য নির্বাচন কমিশন আদালতকে জানিয়েছে, রাজ্যে এখন ১১২টি পুরসভায় ভোট করানো বাকি আছে। ১১২টি পুরসভায় একসঙ্গে ভোট করতে হলে ৩০ হাজার ১৭৩টি ইভিএম প্রয়োজন রয়েছে। কিন্তু এখন কমিশনের হাতে রয়েছে ১৫ হাজার ৬৮৭টি ইভিএম। কলকাতা পুরনিগমে ১৪৪টি ওয়ার্ডে ভোট করতে ৭ হাজার ৯৯৯টি ইভিএম প্রয়োজন রয়েছে। বাকি যে সংখ্যক ইভিএম হাতে থাকবে, তা দিয়ে হাওড়ায় ভোট করানো সম্ভব। ফলে কোনওভাবেই রাজ্যের সব কটি পুরসভায় এক সঙ্গে ভোট করানো সম্ভব নয়। একইসঙ্গে আদালতকে কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, রাজ্যে বিভিন্ন পুরসভা একাধিক দফায় ভোট করানোর পরিকল্পনা রয়েছে রাজ্য নির্বাচন কমিশনের।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে বিজেপির তরফে রাজ্যে সব পুরসভায় একসঙ্গে ভোট করানোর দাবি তোলা হয়েছে। এই প্রসঙ্গে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানান, ‘‌পশ্চিমবঙ্গের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষা করার জন্য সব পুরসভায় একসঙ্গে ভোট করানো উচিত। আদালতে আমরা এই আবেদনই করেছি।’‌ এই প্রসঙ্গে অবশ্য রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, রাজ্যে বিধানসভা উপনির্বাচন তো বিভিন্ন দফায় করিয়েছিল কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন। সেই রকমই রাজ্য নির্বাচন কমিশনও রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যে একাধিক দফায় ভোট করানোর ব্যাপারে।

বন্ধ করুন