বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ > পুরভোটের লড়াই > তুমুল কড়়াকড়ি, ত্রিস্তরীয় সুরক্ষা বলয়ে বুধবার পুরভোটের গণনা
বুধবার বাংলা জুড়ে পুরভোটের গণনা হবে (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

তুমুল কড়়াকড়ি, ত্রিস্তরীয় সুরক্ষা বলয়ে বুধবার পুরভোটের গণনা

  • সূত্রের খবর, ১০৭টি জায়গায় ভোট গণনা করা হবে। গণনাকেন্দ্রকে ঘিরে ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

সন্ত্রাস নিয়ে চাপানউতোর এখনও চলছে। তবে তার মধ্যেই রাত পোহালেই ভোট গণনা। ১০৮টি পুরসভার মধ্য়ে কোনটি কার দখলে থাকবে তা নিয়ে ইতিমধ্য়েই নানা জল্পনা ছড়িয়েছে। ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনুমান এবার গোটা রাজ্য জুড়েই ঘাসফুলের জয়জয়কার হতে পারে। বিরোধীরা কার্যত দাঁড়ানোর সুযোগ পাবেন না রাজ্য জুড়ে। তবে ফলাফল যেটাই হোক, গণনার দিন যাতে কোথাও কোনও অশান্তি না  হয় তা নিশ্চিত করার চেষ্টা করছে পুলিশ প্রশাসন। 

সূত্রের খবর, ১০৭টি জায়গায় ভোট গণনা করা হবে। গণনাকেন্দ্রকে ঘিরে ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। গণনাকেন্দ্রে প্রবেশের ক্ষেত্রে যাবতীয় কড়াকড়ির ব্যবস্থা করা হচ্ছে। সকাল ৮টা থেকে গণনা শুরু হয়ে যাবে।  প্রথমে ইডির ভোট গণনা করা হবে। অন্যঘরে ইভিএমের গণনা শুরু হবে।  রাজ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, প্রত্যেক গণনাকেন্দ্রকে সিসি ক্যামেরা দিয়ে মুড়ে ফেলা হবে। 

সূত্রের খবর, গণনা কেন্দ্রের ২০০ মিটারের মধ্যে ১৪৪ ধারা জারি থাকবে। গণনাকেন্দ্রের একেবারে বাইরে থেকে ভেতর পর্যন্ত পর পর থাকবে লাঠিধারী পুলিশ থেকে কমব্যাট ফোর্স। গণনাকেন্দ্রের মধ্যে প্রার্থী ও পোলিং এজেন্টরা উপস্থিত থাকবেন। রিটার্নিং অফিসার ছাড়া আর কেউ মোবাইল নিয়ে গণনাকেন্দ্রের মধ্যে প্রবেশের অধিকার নেই। এবার প্রশ্ন উঠছে গণনার দিনই কি বিজয় মিছিল করা যাবে? এব্যাপারে জানানো হয়েছে.মিছিল করার অনুমতি মিললেও কোনও রকম গণ্ডগোল যাতে না হয় সেটা দেখা হবে। 

 

বন্ধ করুন