বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > করণের খবর সত্যি! পাহারিয়া ভাইদের সঙ্গে প্রেম করেছে সারা-জাহ্নবী, ফাঁস ঘনিষ্ঠ ছবি
দেখুন সারা আর জাহ্নবীর সঙ্গে পাহারিয়া ভাইদের ছবি।

করণের খবর সত্যি! পাহারিয়া ভাইদের সঙ্গে প্রেম করেছে সারা-জাহ্নবী, ফাঁস ঘনিষ্ঠ ছবি

  • করণ জোহর তাঁর শো কফি উইথ করণেই বলেছিলেন দুই ভাইযের সঙ্গে প্রেম করেছেন সারা আলি খান আর জাহ্নবী কাপুর। খবর ফাঁস করার দিনকয়েকের ভিতরে ঘনিষ্ঠ ছবি ভাইরাল। 

‘কফি উইথ করণ’-এর ৭ নম্বর সিজনে কফি কাফচে বসেছিলেন সারা আলি খান আর জাহ্নবী কাপুর। দুজনে এখন ইন্ডাস্ট্রির নতুন বিবিএফ। প্রায়ই একসঙ্গে ঘুরতে চলে যান ইতিউতি। করণের শো-তেও তাঁরা এসেছিলেন একই সঙ্গে। আর সেখানেই প্রেম নিয়ে এই দুই তরুণ নায়িকাকে বেশ কিছু প্রশ্ন করেন করণ। সঙ্গে এটাও ফাঁস করেন দু'জনে একসঙ্গে দুই ভাইয়ের সঙ্গে প্রেম করেছেন। আর করণের মুখ থেকে এই কথা চাউর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই পাহারিয়া ভাইদের সঙ্গেই দুই নায়িকার ছবি ভাইরাল হল।

করণ জোহর তাঁর শো-তে বলেছিলেন, ‘অতিমারির আগের কথা ভাবছি আমি। তোমাদের বন্ধুত্ব এখন কতটা গভীর জানি না। কিন্তু তোমরা দু'জন দুই ভাইয়ের সঙ্গে প্রেম করতে। আমি যে বহুতলে থাকি, তারাও সেখানে থাকত।’ যারা জানেন না, তাঁদের জন্য বলে দিই করণ যে দুই ভাইয়ের কথা বলছেন তাঁরা হল বীর এবং শিখর পাহারিয়া। মুম্বইয়ের নাম করা ধনী এবং রাজনৈতিক ক্ষমতাসম্পন্ন এই পাহারিয়া পরিবার। এদের দাদু (মায়ের বাবা) সুশীল কুমার শিন্ডে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। বাবার নানারকম ব্যবসা আছে। দেখুন সেই ছবিগুলো--

এই সেই ভাইরাল ছবিগুলি।
এই সেই ভাইরাল ছবিগুলি।

সারা আলি খান হলেন সইফ আলি খান ও অমৃতা রাও-এর বড় মেয়ে। ২০১৮ সালে ‘কেদারনাথ’ ছবি দিয়ে পা রেখেছেন বলিউডে। পেয়েছিলেন সেরা ডেবিউ সম্মান ফিল্মফেয়ারের তরফে। আর ওই একই বছরে শশাঙ্ক খৈতানের ‘ধড়ক’ দিয়ে কেরিয়ার শুরু হয় জাহ্নবী কাপুরের। শ্রীদেবী আর বনি কাপুরের বড় মেয়ে তিনি। আরও পড়ুন: বোনের অডিও বার্তা, রক্ষা বন্ধনের প্রোমোশনে বাচ্চাদের মতো কাঁদলেন অক্ষয়!

নিজেদের গাঢ় বন্ধুত্ব নিয়েও কথা বলেছিলেন তাঁরা কফি উইথ করণে। শ্রীদেবী-কন্যা জানিয়েছিলেন, 'গোয়ায় আমরা পাশাপাশি বাড়িতে থাকতাম। আমার এক বন্ধুর সঙ্গে সারারও বন্ধুত্ব ছিল। তার পর আমরাও কথা বলা শুরু করি। সেই কথা শেষ হতে সকাল ৮টা বেজে গিয়েছিল।' আরও পড়ুন: ‘পিলু’তে রঞ্জা-মল্লারের প্রেমে নতুন কাঁটা, আসছে ‘কী করে বলব তোমায়’ অভিনেত্রী

দুজনেই তকন জানিয়েছিলেন তাঁদের জন্য এটা মেনে নেওয়া কষ্টের ছিল যে কেরিয়ার শুরু হতে না হতেই করোনা আর লকডাউনের কারণে তাঁদের কেরিয়ারে আসা আচমকা বাধা। যখন কাজ বন্ধ হয়ে গেল। একটা একটা করে দিন নষ্ট হওয়া শুরু হল। আর দুজনেই যেহেতু একইরকম মানসিক পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন তাই একে-অপরকে বোঝা তাঁদের জন্য আরও সহজ ছিল।

 

বন্ধ করুন