বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > দাঁতে ব্যথা কমানোর অব্যর্থ দাওয়াই! প্রাচীণ এই ঘরোয়া টোটকায় কাজ হবে নিমেষে
দাঁতের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া টোটকা। 
দাঁতের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া টোটকা। 

দাঁতে ব্যথা কমানোর অব্যর্থ দাওয়াই! প্রাচীণ এই ঘরোয়া টোটকায় কাজ হবে নিমেষে

  • দাঁতে ব্যথা হলে তা প্রাথমিক ভাবে সারিয়ে ফেলতে এই ঘরোয়া টোটকাগুলো ট্রাই করুন। 

দাঁতে ব্যথা হল এমন এক সমস্যা যা সহ্য করা যায়না একেবারেই। না খাবার খাওয়া যা, না শুয়ে দু'দণ্ড বিশ্রাম নেওয়া যায়। দাঁতের ডাক্তারের কাছে যেতে ভয় পান অনেকেই। তাই প্রাথমিকভাবে পেইনকিলার খেয়ে ব্যথা সারানোর চেষ্টা করেন। এবার থেকে গাদা গাদা ওযুধ না খেয়ে বরং এই ঘরোয়া টোটকাগুলো ট্রাই করে দেখুন। মা-দিদিমাদের এই টোটকা, সেই প্রাচীণ কাল থেকে চলে আসছে। এবং তা কাজ করে ঠিক ম্যাজিকের মতো! তবে, ব্যথা বেশি বলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিন। 

  • এক গ্লাস উষ্ণ জলে বেশি করে নুন গুলে নিয়ে কুলকুচি করুন যতক্ষণ সম্ভব। যদি কোনও জীবাণুর কারণে দাঁতে ব্যথা হয়, সে ক্ষেত্রে নুন-জল ব্যথা কমিয়ে দেবে। দাঁতের গোড়ায় খাবার আটকে থাকলে সেটাও বের করে দিতে সক্ষম নুন-জল। এছাড়াও মাড়িতে রক্ত চলাচল ভালো করে এটি।
  • রসুনের পেস্ট তৈরি করে তা দাঁতের গোড়াতে লাগান। একটু ঘেন্না বা গন্ধ লাগলেও এটি খুব কার্যকরী। রসুনের মধ্যে রয়েছে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল উপাদান, যা ব্যথা কমাতে কার্যকর। একটি রসুনের কোয়া থেঁতলে নিন। এবার তাতে সামান্য নুন মেশান। ব্যথার জায়গায় লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। তারপর দাঁত মেজে নিলেই গন্ধ চলে যাবে।
  • দাঁতে ব্যথার সঙ্গে মাড়ি ফোলার সমস্যা দেখা গেলে সেখানে ঠান্ডা সেঁক বা কোল্ড কমপ্রেস দিন। একটি তোয়ালে রুমালে বরফ নিয়ে তা ধীরে ধীরে মাড়িতে লাগান। হালকা হাতে অল্প চেপে রাখবেন। এতে ব্যথা কমে যাবে অনেকটাই।
  • পেয়ারা পাতার রস দাঁতের জন্য উপকারী। পেঁয়ারা পাতা ভালো করে ধুয়ে চিবোতে পারেন। অথবা পেয়ারা পাতা গরম জলে ফুটিয়ে নিন। তারপর সেই জল দিয়ে কুলকুচি করুন। এতে থাকা অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান ক্ষত সারিয়ে তোলে ও অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল উপাদান মুখের ভিতরে থাকা রোগ জীবাণু নাশ করে।
  • লবঙ্গের তেল দু' ফোঁটা ব্যথা দাঁতের গোড়ায় লাগিয়ে নিন। অথবা, তুলোয় ভিজিয়ে তা দাঁতের ওপর দিয়ে রাখুন। এতেও আরাম পাবেন।

বন্ধ করুন