CAA বিরোধীদের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন তেলাঙ্গনার বিজেপি সাংসদ।
CAA বিরোধীদের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন তেলাঙ্গনার বিজেপি সাংসদ।

পাথর ছুড়লে বোমা মারব, CAA বিরোধীদের হুমকি বিজেপি নেতার

  • সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন যাঁরা অমান্য করতে চাইছেন, তাঁদের ‘ব্রেকহীন বাসে’ চাপিয়ে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়ার হুমকিও দিয়েছেন করিমনগরের বিজেপি নেতা।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে বিজেপি কর্মীদের নিশানা করে পাথর ছুড়লে ছুরি ও বোমায় জবাব দেওয়া হবে। বুধবার ওয়ারাঙ্গালে এক জনসভায় এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তেলাঙ্গনার বিজেপি সাংসদ বান্দি সঞ্জয় কুমার।

শুধু তাই নয়, এই আইন যাঁরা অমান্য করতে চাইছেন, তাঁদের ‘ব্রেকহীন বাসে’ চাপিয়ে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়ার হুমকিও দিয়েছেন করিমনগরের বিজেপি নেতা।

সিএএ-এর সমর্থনে ডাকা ওই জনসভার মঞ্চে দাঁড়িয়ে সঋ্জয় কুমার বলেন, ‘পাথর ছুড়লে বোমা ফেলব। লাঠি ব্যবহার করলে ছুরি দিয়ে পালটা দেব। যদি বোম ছোড়ার চেষ্টা কর, তা হলে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ব। যুদ্ধ শুরু হয়ে গিয়েছে। কাউকে আমরা ছাড়ব না।’

ভাষণে শাসকদল তেলাঙ্গনা রাষ্ট্র সমিতি (টিআরএস) এবং অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের (এআইএমআইএম) বিরুদ্ধে কড়া ভাষায় আক্রমণ করে তাদের ‘হিন্দু-বিরোধী’ আখ্যা দিয়েছেন সাংসদ।

এ ছাড়া কংগ্রেস, কমিউনিস্ট এবং ধর্ম নিরপেক্ষরা হাত মিলিয়ে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন সম্পর্কে লোককে ভুল বুঝিয়ে অশান্তি ছড়াচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন সঞ্জয় কুমার।

তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ২০০৭ সালের হায়দরাবাদ বিস্ফোরণকাণ্ডে অভিযুক্তদের তেলাঙ্গনার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রায় নাগরিকত্ব দিতে চান কি না।

বিজেপি সাংসদের দাবি, সিএএ-এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাতে সবুজ পতাকা নেড়ে ওয়ারাঙ্গালের পরিবেশ দূষিত করছে এআইএমআইএম। তাঁর মতে, তেলাঙ্গনায় গেরুয়া নিশান ছাড়া অন্য কোনও পতাকার স্থান নেই।

বন্ধ করুন