বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ২০২০ সালে ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানেও তুমুল জনপ্রিয় দূরদর্শন ও AIR, দাবি কেন্দ্রের
২০২০ সালে দূরদর্শন ও আকাশবাণীর চ্যানেলগুলি ১০০ কোটির বেশি বার এবং ৬০০ কোটি ডিজিটাল ওয়াচ মিনিট ধরে দেখা হয়েছে।
২০২০ সালে দূরদর্শন ও আকাশবাণীর চ্যানেলগুলি ১০০ কোটির বেশি বার এবং ৬০০ কোটি ডিজিটাল ওয়াচ মিনিট ধরে দেখা হয়েছে।

২০২০ সালে ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানেও তুমুল জনপ্রিয় দূরদর্শন ও AIR, দাবি কেন্দ্রের

  • দূরদর্শন ও অল ইন্ডিয়া রেডিয়োর সর্বোচ্চ দর্শক ও শ্রোতা সংখ্যার তালিকায় ভারতের পরেই রয়েছে পাকিস্তান।

২০২০ সালে একশো শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে প্রসার ভারতীর অধীনে থাকা ডিজিটাল চ্যানেলগুলি। জানা গিয়েছে, দূরদর্শন ও অল ইন্ডিয়া রেডিয়োর দর্শক ও শ্রোতা সংখ্যার তালিকায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্থানে রয়েছে পাকিস্তান। রবিবার এই তথ্য জানিয়েছে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক।

মন্ত্রকের দাবি, গত বছর দূরদর্শন ও আকাশবাণীর চ্যানেলগুলি ১০০ কোটির বেশি বার এবং ৬০০ কোটি ডিজিটাল ওয়াচ মিনিট ধরে দেখা হয়েছে।

মন্ত্রকের তরফে প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘২০২০ সালে দূরদর্শন ও অল ইন্ডিয়া রেডিয়োর কনটেন্ট ভারতের পরে সবচেয়ে

বেশি দেখা হয়েছে পাকিস্তানে। তার পরেই রয়েছে আমেরিকার স্থান।’

২০২০ সালে প্রসার ভারতীর মোবাইল অ্যাপ ‘নিউজ অন এয়ার’ ব্যবহার করেছেন ২৫ লাখ ইউজার, যার ফলে ৩০ কোটির বেশি ভিউ এসেছে এই প্ল্যাটফর্মে। 

পাশাপাশি, ২০০ টির বেশি স্ট্রিমস-এ লাইভ রেডিয়ো স্ট্রিমিং জনপ্রিয়তম ফিচার হিসেবে উঠে এসেছে।

ডিডি ন্যাশনাল (DD National) ও ডিডি নিউজ (DD News) ছাড়া প্রসার ভারতীয় প্রথম ২০টি জনপ্রিয় ডিজিটাল চ্যানেলের মধ্যে রয়েছে ডিডি সৈহাদ্রির মরাঠি নিউজ, ডিডি চন্দনার কন্নড় অনুষ্ঠান, ডিডি বাংলার বাংলা নিউজ এবং ডিডি সপ্তগিরির তেলুগু অনুষ্ঠান। 

বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘ডিডি স্পোর্টস (DD Sports) ও আকাশবাণী স্পোর্টস-এর (Akashvani Sports) ধারাভাষ্যের সুবাদে স্থায়ী ডিজিটাল ফলোয়িং রয়েছে। সেই সঙ্গে প্রসার ভারতী আর্কাইভস এবং ডিডি কিষাণ (DD Kisan)চ্যানেলগুলিও জনপ্রিয়তার নিরিখে প্রথম ১০টি চ্যানেলের তালিকায় স্থান পেয়েছে।’

একই ভাবে প্রথম ১০ জনপ্রিয় চ্যানেলের তালিকায় স্থান পেয়েছে অল ইন্ডিয়া রেডিয়োর উত্তর-পূর্ব ভারতের পরিষেবার অধীনস্থ খবর। এই চ্যানেল বর্তমানে ১ লাখ গ্রাহকের মাইলফলক অতিক্রম করেছে।

প্রসার ভারতীর তরফে জানানো হয়েছে, ২০২০ সালের অন্যতম সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিয়োগুলির মধ্যে রয়েছে স্কুল পড়ুয়াদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কথোপকথন, প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজ এবং ডিডি ন্যাশনাল আর্কাইভস-এ সংরক্ষিত সত্তরের দশকে রেকর্ড করা শকুন্তলা দেবীর একটি বিরল ভিডিয়ো।

গত বছরেই চালু হয়েছে প্রসার ভারতীর সংস্কৃত ভাষার ইউটিউব (YouTube) চ্যানেল। এ ছাড়া দেশব্যাপী দূরদর্শন ও অল ইন্ডিয়া রেডিয়ো চ্যানেলে সংস্কৃত ভাষার অনুষ্ঠান নিয়মিত সম্প্রচার করা হচ্ছে। 

কেন্দ্রীয় মন্ত্রক জানিয়েছে, ভারতের বিভিন্ন ভাষায় প্রায় ১,৫০০ রেডিয়ো নাটক সম্প্রচার করা হয়েছে ২০২০ সালে। পরে সেগুলির ডিজিটাল সংস্করণ তৈরি করে ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করা হয়েছে। 

গত বছর প্রধানমন্ত্রীর ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানটি ও তার টুইটার হ্যান্ডেল প্রবল জনপ্রিয় হয়েছে। আপাতত তার ৬৭,০০০ এর বেশি ফলোয়ার রয়েছেন। ইউ টিউব চ্যানেলে অনুষ্ঠানটি বিভিন্ন ভারতীয় ভাষায় অনুবাদ করে আপলোড করা হয়েছে।
এ ছাড়া, কোভিড লকডাউন পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের স্বার্থে সম্প্রচারিত বিভিন্ন ভাষায় তৈরি শিক্ষামূলক অনুষ্ঠানও তুমুল জনপ্রিয় হয়েছে। 

শুধু তাই নয়, গ্রাহকদের অনুরোধে দীর্ঘ কয়েক দশক ধরে প্রসার ভারতীর আর্কাইভে সংরক্ষিত রাজনৈতিক, সাংগীতিক ও সাংস্কৃতিক কনটেন্ট ডিজিটাইজ করে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করার পরিকল্পনাও করেছে প্রসার ভারতী।

বন্ধ করুন