মরিশাসের রাষ্ট্রপতি পৃথ্বীরাজ সিং রোপুনকে দিল্লি যাওয়ার পথে আটকানো হয় (ছবি টুইটার)
মরিশাসের রাষ্ট্রপতি পৃথ্বীরাজ সিং রোপুনকে দিল্লি যাওয়ার পথে আটকানো হয় (ছবি টুইটার)

দিল্লি যাওয়ার পথে বারাণসী বিমানবন্দরে আটক রাষ্ট্রপতি!

  • বারাণসী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হল মরিশাসের রাষ্ট্রপতি পৃথ্বীরাজ সিং রোপুনকে। দিল্লি যাওয়ার পথে আটকানো হয় এই রাষ্ট্রপ্রধানকে।

বারাণসী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হল মরিশাসের রাষ্ট্রপতিকে! মরিশাসের প্রেসিডেন্ট পৃথ্বীরাজ সিং রোপুনকে দিল্লি যাওয়ার পথে আটকানো হয়। তাঁর সঙ্গে অতিরিক্ত জিনিসপত্র থাকার কারণেই তাঁকে আটকে দেওয়া হয়। দুদিনের জন্য মন্দিরের শহর বারাণসী ঘুরতে এসেছিলেন মরিশাসের রাষ্ট্রপতি, তাঁর সঙ্গে ছিল ৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল।

লাল বাহাদুর শাস্ত্রী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এয়ার ইন্ডিয়ার তরফে জানানো হয়, রাষ্ট্রপতি তাঁর সঙ্গে থাকা অতিরিক্ত মালপত্রের জন্য বাড়তি টাকা মেটালে তবেই তাঁকে দিল্লিগামী বিমানে চড়তে দেওয়া হবে।

এয়ারপোর্ট ডিরেক্টর আকাশদীপ মাথুর এই খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বিষয়টি তাঁর নজরে আসার সঙ্গে সঙ্গে তিনি যোগাযোগ করেন এয়ার ইন্ডিয়ার সঙ্গে, জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কুশাল রাজ শর্মাও কথা বলেন এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীদের সঙ্গে। তবে তাঁদের তরফে পরিস্কার জানিয়ে দেওয়া হয়, তাঁরা নিময় মেনেই কাজ করছে।

এরপর আধিকারিকদের তরফে কেন্দ্রীয় বিমানচালনা মন্ত্রকের সঙ্গে এবং এয়ার ইন্ডিয়ার উচ্চ পদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়, যাতে অতিথি রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে মালপত্রের জন্য অতিরিক্ত টাকা না নেওয়া হয়।

এয়ার ইন্ডিয়া ম্যানেজার আতিফ ইরদিশ জানিয়েছেন, যে পরিমাণ ওজনের মালপত্র অতিরিক্ত টাকা না দিয়ে বিমানসফরে নিয়ে যাওয়া সম্ভবকর, তার থেকে বেশি জিনিস ছিল মরিশাসের রাষ্ট্রপতিক সঙ্গে, তাই নিয়ম মেনেই তাঁকে আটকে ছিল এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীরা। তবে সরকারি আধিকারিকদের অনুরোধের পর কোনওরকম টাকা না নিয়েই তাঁকে দিল্লির বিমানে উঠতে দেওয়া হয়।

বন্ধ করুন