বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বিরোধীদের আচরণ লজ্জাজনক, রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা ছিল সরকারের, দাবি রবিশংকরের
রবি শংকর প্রসাদ
রবি শংকর প্রসাদ

বিরোধীদের আচরণ লজ্জাজনক, রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা ছিল সরকারের, দাবি রবিশংকরের

  • কৃষি বিল নিয়ে রাজ্যসভায় যে হাঙ্গামা হয়েছে, সেই নিয়ে বিরোধীদের কড়া নিন্দা করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। 

রবিবারের রাজ্যসভায় কৃষি বিল নিয়ে যে তীব্র বাদানুবাদ ও ঝামেলা হয়, তার জল গড়াল সোমবারও। একদিকে সাসপেন্ড হলেন আট সাংসদ। অন্যদিকে সব দলকে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে বললেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যদিকে বিরোধীদের তীব্র ভাষায় নিন্দা করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ। যেভাবে রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান বিহারের হরিবংশকে হেনস্থা করা হয়েছে, সেটা যে আসন্ন বিধানসভা ভোটে তুলে ধরবে বিজেপি, এদিন সেটিও স্পষ্ট করে দেন তিনি। 

কেন কৃষি বিল ধ্বনি ভোটে পাশ হল এই নিয়ে রবিবার থেকে অনেক প্রশ্ন উঠেছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তার জবাবে বলেন যে বিরোধীরা যেভাবে হাঙ্গামা করছিল, সেই কারণেই ভোট নেওয়ার কোনও সুযোগ ছিল না। কংগ্রেস সহ অন্যান্যদের দাবি খণ্ডন করে রবিশংকর বলেন যে রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে সরকারের। তিনি বলেন কৃষি ভোট নিয়ে আলোচনার সময় সরকার পক্ষে ১১০ জন ছিলেন, অন্যদিকে বিরোধীদের ছিল মাত্র ৭০। সেই কারণে ভোটিং করানোর ক্ষেত্রে তাদের কোনও সমস্যা ছিল না বলে তিনি জানান। 

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন যে বিরোধীদের নিজেদের আসনে ফিরে যাওয়ার জন্য তেরোবার অনুরোধ করেছিলেন ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ। তারপরেও মাইক ভাঙা হয়, বিলের কপি ছেঁড়া হয়। উপস্থিত মার্শালরা বাধা না দিলে হরিবংশ হয়তো নিগৃহীত হতেন, এমন সম্ভাবনার কথা উড়িয়ে দেওয়া যায় না বলে তাঁর মতামত। কেন বিহার তথা সারা দেশে বরেণ্য এক ব্যক্তির সঙ্গে এরকম আচরণ করা হল, এর জবাব কংগ্রেস ও আরজেডিকে দিতে হবে বলে তিনি দাবি করেন। 

প্রসঙ্গত হরিবংশের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ করে তাঁর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার চেষ্টা করেছিলেন বিরোধীরা। তবে তাদের সেই দাবি খারিজ হয়ে গিয়েছে। 

বন্ধ করুন