বাংলা নিউজ > ময়দান > Asia Cup 2022: পাকিস্তানের রিজওয়ানকে টপকে ফের T20I –র ‘কিং’ হলেন বিরাট কোহলি
হংকং-এর বিরুদ্ধে বিরাট কোহলি (ছবি-এএনআই) (ANI)

Asia Cup 2022: পাকিস্তানের রিজওয়ানকে টপকে ফের T20I –র ‘কিং’ হলেন বিরাট কোহলি

  • এই রানের ফলে এখন ১০১টি ম্যাচ খেলে বিরাট কোহলির টি-টোয়েন্টিতে ৫০.৭৭ গড়ে ৩,৪০২ রান করেছেন। এই ফর্ম্যাটে বিরাট কোহলির ৩১টি অর্ধশতক রয়েছে। টি টোয়েন্টি ফর্ম্যাটে বিরাট কোহলির ব্যক্তিগত সেরা স্কোর হল অপরাজিত ৯৪ রান। বিরাট ১৩৭.১২ স্ট্রাইক রেটে রান করেছেন।

ফের ছন্দে ফিরছেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বুধবার ভারত বনাম হংকং ম্যাচের সময় তারকা ভারতীয় ব্যাটসম্যান টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক ফর্ম্যাটে একটি বড় কৃতিত্ব অর্জন করেছেন। আসলে, এখন তিনি ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে সর্বোচ্চ গড় খেলোয়াড় হয়ে উঠেছেন। তিনি এই বিষয়ে পাকিস্তানের মহম্মদ রিজওয়ানকে অনেকটাই পিছনে ফেলেছেন।

দুবাইতে চলতি ২০২২ এশিয়া কাপ-এর সময় দুবাইতে তাঁর গ্রুপ‘এ’ ম্যাচের সময় তিনি এই কৃতিত্ব অর্জন করেছিলেন। এই ম্যাচে বিরাট কোহলি তাঁর পুরানো অবতারে উপস্থিত হয়েছিলেন। ৪৪ বলে অপরাজিত ৫৯ রানের ইনিংস খেলেছিলেন বিরাট কোহলি। তাঁর এদিনের ইনিংসে ছিল ১টি চার ও ৩টি ছক্কা।

আরও পড়ুন… কোন নামে CSAT20 লিগে খেলবে চেন্নাই সুপার কিংস?

এই রানের ফলে এখন ১০১টি ম্যাচ খেলে বিরাট কোহলির টি-টোয়েন্টিতে ৫০.৭৭ গড়ে ৩,৪০২ রান করেছেন। এই ফর্ম্যাটে বিরাট কোহলির ৩১টি অর্ধশতক রয়েছে।টি টোয়েন্টি ফর্ম্যাটে বিরাট কোহলির ব্যক্তিগত সেরা স্কোর হল অপরাজিত ৯৪ রান। বিরাট ১৩৭.১২ স্ট্রাইক রেটে রান করেছেন।

এই রেকর্ড ছুঁয়ে পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান মহম্মদ রিজওয়ানকে পিছনে ফেলেছেন বিরাট কোহলি। ৫৭ ম্যাচে রিজওয়ানের গড় ৫০.১৪। তার পরেই রয়েছেন নিউজিল্যান্ডের ডেভন কনওয়ে। তিনি ২৩ ম্যাচে ৪৭.২০ গড়ে রান করেছেন। পাকিস্তানের তারকা ব্যাটসম্যান বাবর আজম ৭৫ ম্যাচে ৪৪.৯৩ গড়ে রান করেছেন। এর পরেই রয়েছেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান মনীশ পান্ডে। যিনি ৩৯ ম্যাচে ৪৪.৩১ গড়ে রান করেছেন।

আরও পড়ুন… ইরফান পাঠানকে টপকে ভারতীয় হিসাবে এশিয়া কাপে রেকর্ড গড়লেন রবীন্দ্র জাদেজা

ভারত বনাম হংকং ম্যাচের কথা বলতে গেলে,হংকংয়ের বিরুদ্ধে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে টিম ইন্ডিয়া তাদের নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৯২/২ রান করেছিলেন। বিরাট কোহলি কিছু ভালো শট খেলেন এবং ৪৪ বলে অপরাজিত ৫৯ রান করেন। এর মধ্যে একটি চার ও তিনটি বড় ছক্কা ছিল। শেষ কয়েক ওভারে, সূর্যকুমার যাদব ছয়টি চার ও ছয়টি ছক্কার সাহায্যে ২৬ বলে অপরাজিত ৬৮ রানের একটি দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। অন্যদিকে, হংকংয়ের দল ২০ ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৫২ রান করতে পারে এবং ভারত ৪০ রানে ম্যাচটি জিতে যায়। এদিনের ম্যাচ জিতে সুপার ফোরে-এ নিজেদের জায়গা নিশ্চিত করেছে টিম ইন্ডিয়া। গ্রুপ ‘এ’ থেকে টিম ইন্ডিয়া সুপার ফোরে-এ জায়গা পাকা করে নেওয়া প্রথম দল হয়েছে।

বন্ধ করুন