বাংলা নিউজ > ময়দান > ভাইয়ের জন্য নিয়ম ভেঙে বিতর্কের মুখে বাবর আজম! পাক অধিনায়ককে সতর্ক করল PCB
নেটে অনুশীলন করছেন বাবর আজমের ভাই

ভাইয়ের জন্য নিয়ম ভেঙে বিতর্কের মুখে বাবর আজম! পাক অধিনায়ককে সতর্ক করল PCB

  • পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের নির্দেশের তোয়াক্কা না করেই বাবর আজম তার ভাই সাফির আজমকে HPC-তে নিয়ে আসেন। শুধু নিয়ে আসেন না, সাফিরকে এখানে নেট অনুশীলন করার সুযোগ করে দেন। এই ঘটনার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায়। এ ব্যাপারে বাবরকে সতর্ক করেছে পিসিবি।

বিতর্কের সামনে পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। তিনি অনুশীলনে নিজের ভাইকে নিয়ে এসে বিপদে পড়লেন। আসলে লাহোরের হাই পারফরম্যান্স সেন্টারে নিয়ে এসে ভাইকে অনুশীলন করার সুযোগ করে দিতেই প্রশ্নের মুখে পড়তে থাকেন বাবর আজম। নিয়ম অনুযায়ী এইচপিসিতে শুধুমাত্র দেশের জাতীয় ক্রিকেটার এবং প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার এবং জুনিয়র ক্রিকেটাররাই প্রশিক্ষণ করতে পারেন। দেশের সেই সকল ক্রিকেটারদেরই এখানে অনুশীলন এবং ফিটনেস করার সুবিধাগুলি ব্যবহার করার অনুমতি রয়েছে। 

তবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) নির্দেশের তোয়াক্কা না করেই বাবর আজম তার ভাই সাফির আজমকে এখানে নিয়ে আসেন। শুধু নিয়ে আসেন না, সাফিরকে এখানে নেট অনুশীলন করার সুযোগ করে দেন। এই ঘটনার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায়। বাবরকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ট্রোল করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে বাবরকে সতর্ক করেছে পিসিবি।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন সাফির। এই ভিডিয়োতে তাকে বাবর আজমের তত্ত্বাবধানে নেট অনুশীলন করতে দেখা গেছে। সাফির আজম ব্যাটিং অনুশীলন করছিলেন, তার সামনে বোলিং করতে দেখা গেছে পাকিস্তানি ফাস্ট বোলার শাহনওয়াজ দাহানিকে।

এই ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়। আসলে,সাফির না তো প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার, না তো কোনও ধরনের জুনিয়র ক্রিকেটে নিজের প্রভাব ফেলেছেন। পাকিস্তানের অধিনায়কের ভাই হওয়ার কারণে তিনি এইচপিসিতে প্রবেশ করেছিলেন এবং অনুশীলন করেছেন। এই ঘটনায় নেটিজেনরা পিসিবি এবং বাবর আজমকে তিরস্কার করেছে। তানভীর আহমেদের মতো প্রাক্তন পাকিস্তানি খেলোয়াড়ও একে ভুল বলেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই সমালোচনার পর বাবরকে পরামর্শও দিয়েছে পিসিবি। এ বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে পিসিবি কর্মকর্তা বলেন, ‘তিন-চার দিন আগে বাবর তার ভাইকে নিয়ে এখানে এসেছিলেন। পরে তার ভাইও এখানে নেট প্র্যাকটিস করেন।যা নজরে আসে। তিনি আমাদের জাতীয় দলের অধিনায়ক,তাই তাকে শান্তভাবে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে যে এমনটা যেন আর না হয়। তিনিও বিবেক-বুদ্ধি সহকারে এটা মেনে নিয়েছেন।’

বন্ধ করুন