বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > জটিল অঙ্কের জটে আটকে সবুজ-মেরুন, ডুরান্ডের নক আউটে পৌঁছতে ATK MB-র ভরসা Emami EB
ডুরান্ডের নকআউটে যেতে ইস্টবেঙ্গলের উপর নির্ভর করতে হবে মোহনবাগানকে।

জটিল অঙ্কের জটে আটকে সবুজ-মেরুন, ডুরান্ডের নক আউটে পৌঁছতে ATK MB-র ভরসা Emami EB

  • ডুরান্ড কাপে গ্রুপ পর্বে সব ম্যাচ খেলে ফেলেছে এটিকে মোহনবাগান। চার ম্যাচে তাদের পয়েন্ট সাত। বুধবার ভারতীয় নৌসেনাকে হারালেও নিশ্চিত হয়নি কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা। শেষ আটে উঠতে হলে সবুজ-মেরুনকে তাকিয়ে থাকতে হবে দু’টি দলের দিকে। আশ্চর্যের হলেও, তাদের মধ্যে একটি দল চিরশত্রু ইস্টবেঙ্গল।

ডুরান্ড কাপের নকআউটে কি আদৌ কি উঠতে পারবে এটিকে মোহনবাগান? যা গ্রুপের পরিস্থিতি, তাতে সবুজ-মেরুনের পরের পর্বে যেতে হলে নির্ভর করতে হবে ইস্টবেঙ্গলের উপর।

ডুরান্ড কাপে গ্রুপ পর্বে সব ম্যাচ খেলে ফেলেছে এটিকে মোহনবাগান। চার ম্যাচে তাদের পয়েন্ট সাত। বুধবার ভারতীয় নৌসেনাকে হারালেও নিশ্চিত হয়নি কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা। শেষ আটে উঠতে হলে সবুজ-মেরুনকে তাকিয়ে থাকতে হবে দু’টি দলের দিকে। আশ্চর্যের হলেও, তাদের মধ্যে একটি দল চিরশত্রু ইস্টবেঙ্গল। শনিবার মুম্বই সিটির বিরুদ্ধে ইস্টবেঙ্গল বড় জয় পেলে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত হতে পারে এটিকে মোহনবাগানের। আর তা না হলে নৌসেনার কাছে হারতে হবে রাজস্থান ইউনাইটেড

আরও পড়ুন: শহরে চলে এলেন ATK MB-র তুরুপের তাস, অজি তারকা দিমিত্রির প্রথম লক্ষ্য AFC Cup

ডুরান্ড কাপের নক আউটে পৌঁছানোর সম্ভাবনা ইস্টবেঙ্গলের আর নেই। তারা ইতিমধ্যে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গিয়েছে। ডার্বি হেরেই সেই সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে গিয়েছিল। এ দিকে সোমবার রাজস্থানকে হারিয়েছে মুম্বই। সেই সঙ্গে এটিকে মোহনবাগান বুধবার হারায় নেভিকে। যার ফলে ডুরান্ড কাপ থেকে ছিটকে গিয়েছে লাল-হলুদ। কারণ লাল-হলুদ মুম্বই সিটি এফসি ম্যাচ জিতলেও কোনও ভাবেই ৫ পয়েন্টের বেশি সংগ্রহ করতে পারবে না। যেখানে মুম্বই এবং মোহনবাগানের পয়েন্ট এখনই ৭। তবে এটিকে মোহনবাগানও ডুরান্ডের নক আউটে যাবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

আরও পড়ুন: নক আউটের অঙ্ক জটিল- এ দিকে ATK MB কোচ ক্ষুব্ধ ঘনঘন ম্যাচ খেলা নিয়ে

কী ভাবে এটিকে মোহনবাগানের যোগ্যতা অর্জন নিশ্চিত করতে পারে ইস্টবেঙ্গল?

শনিবার গ্রুপের শেষ ম্যাচে লাল-হলুদ নামবে মুম্বই সিটির বিরুদ্ধে। ওই ম্যাচে তারা অন্তত ছ’গোলের ব্যবধানে মুম্বই সিটিকে হারাতে পারলে এটিকে মোহনবাগানের কোয়ার্টারে খেলা নিশ্চিত হয়ে যাবে। চারটি ম্যাচে মুম্বই দিয়েছে ১০ গোল, খেয়েছে তিনটি। অর্থাৎ গোল পার্থক্য সাত। ইস্টবেঙ্গলের কাছে ছ’গোল খেলে তাদের গোলের ব্যবধান দাঁড়াবে এক। অন্য দিকে, এটিকে মোহনবাগানের গোলের পার্থক্য দুই। সে ক্ষেত্রে দু’দলের পয়েন্ট সমান হলেও এটিকে মোহনবাগান কোয়ার্টারে যাবে। যেহেতু মুম্বইয়ের সঙ্গে ম্যাচ ড্র হয়েছিল সবুজ-মেরুনের।

ডুরান্ড কাপের নিয়ম অনুযায়ী প্রথমে দু’দলের মুখোমুখি সাক্ষাতের ফল দেখা হয়। এটিকে মোহনবাগান এবং মুম্বইয়ের ম্যাচ ১-১ ড্র হয়েছিল। সে ক্ষেত্রে গোল পার্থক্য দেখা হবে। সেখানেই সবুজ-মেরুন টেক্কা দিতে পারে। যদি ইস্টবেঙ্গল ছ’গোলের কম ব্যবধানে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে জেতে বা ম্যাচের ফল অন্য রকম হয়, তা হলে সবুজ-মেরুনের কোনও লাভ হবে না। সে ক্ষেত্রে তাদের তাকিয়ে থাকতে হবে রাজস্থান ইউনাইটেড এবং ভারতীয় নৌ সেনার ম্যাচের দিকে। তবে যা পরিস্থিতি তাতে, এটিকে মোহনবাগানের নক আউটে যাওয়ার আশা কার্যত ক্ষীণ।

বন্ধ করুন