বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > Japan vs Spain: গোলের আগেই বাইরে চলে গিয়েছিল বল? জাপান ম্যাচে রেফারির ভুলে ছিটকে গেল জার্মানি? কী বলছে FIFA-র নিয়ম?

Japan vs Spain: গোলের আগেই বাইরে চলে গিয়েছিল বল? জাপান ম্যাচে রেফারির ভুলে ছিটকে গেল জার্মানি? কী বলছে FIFA-র নিয়ম?

‘এরিয়াল ভিউ’ থেকে বল মাঠের মধ্যেই ছিল। সেটার কারণেই জাপানের পক্ষে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন রেফারি। (ছবি সৌজন্যে এপি এবং এএফপি)

Japan vs Spain: স্পেনের বিরুদ্ধে ৫১ মিনিটে গোল করেন জাপানের তানাকা। মিতোমার যে পাস থেকে তানাকা গোল করেন, সেটা নিয়েই শুরু হয় বিতর্ক। অনেকে দাবি করেন, মিতোমা যখন পাস করেন, ততক্ষণ বলটা লাইন পেরিয়ে গিয়েছিল। কী বলছে ফিফার নিয়ম, তা জেনে নিন।

বলটা কি লাইন পেরিয়ে গিয়েছিল? দীর্ঘক্ষণ ভারের পরও কি ভুল সিদ্ধান্ত নিলেন রেফারি? জাপান-স্পেন ম্যাচের পর সেই বিতর্ক শুরু হয়েছে। যদিও ফিফার নিয়ম বলছে যে বলটা মাঠের মধ্যেই ছিল। রেফারি ঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। 'ক্লোজ কল' হলেও রেফারি ভুল সিদ্ধান্ত নেননি।

ঠিক কী হয়েছিল ঘটনাটি?

বৃহস্পতিবার (কাতারের সময় অনুযায়ী) জাপান-স্পেন ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে সেই বিতর্কের সূত্রপাত হয়। ৫১ মিনিটে গোল করে জাপানকে এগিয়ে দেন তানাকা। তবে কাওরু মিতোমার যে পাস থেকে তানাকা গোল করেন, সেটা নিয়েই শুরু হয় বিতর্ক। একাধিক মহলের তরফে দাবি করা হয়, মিতোমা যখন পাস করেন, ততক্ষণ বলটা লাইন পেরিয়ে গিয়েছিল। অর্থাৎ গোলটা বৈধ নয়। নিজেদের দাবির স্বপক্ষে একটি ছবিও দেখাতে থাকেন তাঁরা। যে ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে, তাতে দেখে মনে হবে যে বলটা লাইন পেরিয়ে গিয়েছে।

সেখানেই লুকিয়ে আছে নিয়মের মাহাত্ম্য। নিয়ম অনুযায়ী, যদি 'এরিয়াল ভিউ' (উপরের দিক থেকে ভিউ) থেকে বলের কোনও অংশ লাইনের মধ্যে থাকে, তাহলে সেই বল মাঠের মধ্যে আছে বলে ধরা হবে এবং খেলা চালিয়ে যেতে হবে। অর্থাৎ গোললাইন টেকনোলজিতে যেভাবে 'এরিয়াল ভিউ' থেকে দেখে নির্ধারণ করা হয় যে বল গোললাইন পেরিয়েছে কিনা, ঠিক সেভাবেই বল মাঠের বাইরে গিয়েছে কিনা, তা নির্ধারণ করা হয়েছে। যেহেতু 'এরিয়াল ভিউ'-তে বলের পুরো ১০০ শতাংশ লাইন পার করেনি, তাই জাপানের পক্ষে সিদ্ধান্ত গিয়েছে।

বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার নয় নম্বর আইনে স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, কোনও বল বেরিয়ে গিয়েছে বলে তখনই ধরা হবে, যখন সেই বল মাটিতে ঠেকা বা শূন্যে থাকা অবস্থায় গোললাইন বা টাচলাইনের পুরোটা (১০০ শতাংশ অর্থাৎ বলের কোনও অংশ লাইনের এপার বা লাইনের উপরে থাকবে না) পেরিয়ে গিয়েছে। যে নিয়মের কারণেই স্পেনের বিরুদ্ধে যখন মিতোমা বল পাস করেন, তখনও খেলার মধ্যেই ছিল বল।

আরও পড়ুন: FIFA WC 2022: শেষ ষোলোয় জাপান কার বিরুদ্ধে খেলবে? স্পেনের প্রতিপক্ষ কে? জানুন সূচি

উল্লেখ্য, ওই গোলের সিদ্ধান্ত নিয়ে আরও বিতর্ক শুরু হয়েছে, কারণ জাপানের ওই গোল বাতিল হয়ে গেলে বিশ্বকাপের নক-আউট পর্যায়ে চলে যেত জার্মানি। কিন্তু ওই গোলের সুবাদে জাপান জিতে যাওয়ায় বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্যায় থেকে গিয়েছেন থমাস মুলাররা। এমনিতে স্পেনকে হারিয়ে গ্রুপ 'ই'-তে শীর্ষ স্থানে শেষ করেছে জাপান (ছয় পয়েন্ট)। স্পেন চার পয়েন্টে আটকে থেকেছে। জার্মানির চার পয়েন্ট থাকলে গোলপার্থক্যে স্পেন নক-আউটে গিয়েছে।

আরও পড়ুন: Costa Rica vs Germany Highlights: রাশিয়ার পর কাতার - পতন জার্মানির, পরপর ২ বার ছিটকে গেল বিশ্বকাপের গ্রুপ লিগ থেকে

কিন্তু জাপান-স্পেন ম্যাচ ড্র হলে (ওই গোলের কারণেই জাপান-স্পেনের ম্যাচের ফল ২-১ হয়,ততক্ষণ ১-১ চলছিল) জাপানের পয়েন্ট দাঁড়াত চার। স্পেনের পয়েন্ট হত পাঁচ। তখন গ্রুপের শীর্ষে থেকে স্পেন নক-আউটে চলে যেত। গোলপার্থক্যে এগিয়ে থাকায় জাপানকে ছাপিয়ে 'রাউন্ড অফ ১৬'-এ চলে যেত জার্মানি।

বন্ধ করুন