বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > T20 World Cup 2007 Final-এ ধোনির বোলাররা মিসবাহকে বল করতেই ভয় পেয়েছিলেন- শোয়েব মালিক

T20 World Cup 2007 Final-এ ধোনির বোলাররা মিসবাহকে বল করতেই ভয় পেয়েছিলেন- শোয়েব মালিক

T20 World Cup 2007 Final-এ চ্যাম্পিয়ন ধোনির টিম ইন্ডিয়া

এ স্পোর্টস প্রসঙ্গে শোয়েব মালিক বলেন, নাম নেব না। ভারতের সব প্রধান বোলারের এক ওভার বাকি ছিল। ধোনি সবাইকে জিজ্ঞেস করলেও শেষ ওভারটা করতে রাজি হননি কেউই। মিসবাহ-উল-হকের বিরুদ্ধে বোলিং করতে ভয় পান প্রত্যেকে।

রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন দল ভারত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ৮ম আসরেও কোনও কীর্তি করতে পারেনি। ১৫ বছর ধরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন এখনও অধরা রয়েছে। সেমিফাইনালে, ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে ইংল্যান্ড। এমএস ধোনির নেতৃত্বে ২০০৭ সালে ভারত একমাত্র টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শিরোপা জিতেছিল। সেই ম্যাচ নিয়ে বড় দাবি করলেন পাকিস্তানের ক্রিকেটার শোয়েব মালিক। তিনি বলেছিলেন যে ভারতের সিনিয়র বোলাররা ২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালের ২০ তম ওভার করতে অস্বীকার করেছিল।

আরও পড়ুন… ক্যাচ মিস, ওভার থ্রোতে ৩ রান- কে বলবে বিশ্বকাপ ফাইনাল! 

এ স্পোর্টস প্রসঙ্গে শোয়েব মালিক বলেন, নাম নেব না। ভারতের সব প্রধান বোলারের এক ওভার বাকি ছিল। ধোনি সবাইকে জিজ্ঞেস করলেও শেষ ওভারটা করতে রাজি হননি কেউই। মিসবাহ-উল-হকের বিরুদ্ধে বোলিং করতে ভয় পান প্রত্যেকে। তখন পুরো মাঠজুড়ে বড় বড় শট খেলছিলেন মিসবাহ। শোয়েব মালিক বলেন, মানুষ সবসময় মিসবাহর স্কুপ শটের কথা বলে। আমি বলছি, শেষ উইকেট না হলে সে শট খেলতে পারত না। ২০তম ওভারে যগিন্দরকে ছক্কা মেরেছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন… বিক্রি হচ্ছে লিভারপুল, EPL-এর ক্লাব কেনার দৌড়ে ভারতের মুকেশ আম্বানি! রিপোর্ট

মিসবাহ-উল-হক তার শট সম্পর্কে বলেছেন যে আমি পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে স্কুপ খেলছিলাম। আমার পরিকল্পনা ছিল বাউন্ডারি মারার। এমন অবস্থায় স্কোর সমতা আনতে আমাদের প্রয়োজন হত এক রান। এমন অবস্থায় ফিল্ডাররা উঠে আসত তারপর ম্যাচ শেষ করতাম। জানা যায়, ফাইনালে পাকিস্তানকে করতে হয়েছিল ১৭ বলে ২৬ রান। যোগিন্দর শর্মার বোলিংয়ে এস শ্রীসন্তের হাতে মিসবাহ ক্যাচ দেয়, এর ফলে বিশ্বকাপের প্রথম আসরের শিরোপা জিতে নেয় ভারত।

এরপর ২০০৯ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে পাকিস্তান শুধুই জায়গা করেনি, শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা জিতেছিল তারা। এখন বাবর আজমের নেতৃত্বে দ্বিতীয় শিরোপা জিততে আজ পুরো জোর দিয়েছিল দলটি। ফাইনালে তারা মুখোমুখি হয়েছিল ইংল্যান্ডের। ২০১০ সালে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছিল ইংল্যান্ড। তবে এবারে আর শিরোপা জিততে পারল না পাকিস্তান, এবার পাকিস্তানকে হারিয়ে দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ ঘরে তুলল ইংল্যান্ড।

 

 

বন্ধ করুন