বাংলা নিউজ > ময়দান > কোহলির ভুলের মাশুল দিচ্ছে দল, বেয়ারস্টোকে স্লেজিং নিয়ে ভারতকে খোঁচা জিমির

কোহলির ভুলের মাশুল দিচ্ছে দল, বেয়ারস্টোকে স্লেজিং নিয়ে ভারতকে খোঁচা জিমির

বেয়ারস্টোকে স্লেজিং কোহলির। ছবি- টুইটার।

কীভাবে জনিকে শান্ত রাখা যাবে, মজাদার পরামর্শ নিশামের।

এজবাস্টন টেস্টের তৃতীয় দিনে ভুল করে ফেলেছেন বিরাট কোহলি। তারই মাশুল দিতে হচ্ছে ভারতীয় দলকে। এমনটাই ইঙ্গিত জিমি নিশামের। কিউয়ি অল-রাউন্ডারের দাবি, প্রতিপক্ষ দল যখনই জনি বেয়ারস্টোকে রাগিয়ে দেন, ব্রিটিশ তারকা দশগুন ভালো খেলতে শুরু করেন।

তাই জিমি নিশামের পরামর্শ, বেয়ারস্টোকে রোজ সকালে উপহারের ঝুড়ি দিয়ে বা অন্য কোনওভাবে খুশি রাখা দরকার, যাতে তিনি খুব ভালো ব্যাট করতে না পারেন।

আসলে এজবাস্টন টেস্টের তৃতীয় দিনে বিরাট কোহলির ক্রমাগত স্লেজিং হজম করতে হয় বেয়ারস্টোকে। বিষয়টি কথা কাটাকাটির পর্যায়ে পৌঁছে যায়। কোহলির সঙ্গে ঝামেলার আগে পর্যন্ত বেয়ারস্টোকে ব্যাট হাতে রীতিমতো অস্বস্তিতে দেখাচ্ছিল। তিনি নিজের ইনিংসের প্রথম ৬৫ বলে মাত্র ১৬ রান সংগ্রহ করেন। শামি ও বুমরাহর বলে বারবার পরাস্ত হতে দেখা যায় জনিকে।

ভারত বনাম ইংল্যান্ড এজবাস্টন টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলার লাইভ আপডেটে চোখ রাখতে ক্লিক করুন

তবে কোহলির স্লেজিংয়ের পরেই খোঁচা খাওয়া বাঘের মতো তেড়ে ওঠেন বেয়ারস্টো। তিনি হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ৮১ বলে। লাঞ্চের আগে ৯১ রানে পৌঁছে যান ১১৩ বলে। বেয়ারস্টো তখনই ১২টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন। শেষমেশ ১৪টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ১১৯ বলে ব্যক্তিগত শতরান পূর্ণ করেন জনি। বোঝাই যাচ্ছে যে রাগের মাথায় ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালান জনি।

নিশামের টুইট।
নিশামের টুইট।

এর পরেই নিশাম টুই করে খোঁচা দেন কোহলি তথা ভারতীয় দলকে। তিনি লেখেন, ‘কেন যে প্রতিপক্ষ দল জনি বেয়ারস্টোকে রাগিয়ে তোলে! ও (রেগে গেলে) দশগুন ভালো খেলে।’

আরও পড়ুন:- বন্ধুত্ব বদলে গেল শত্রুতায়, বেয়ারস্টোকে কোহলির স্লেজিংয়ে হাওয়া গরম এজবাস্টনে: ভিডিয়ো

পরক্ষণেই বেয়ারস্টোকে কীভাবে শান্ত রাখা যাবে, সেই পরামর্শও দেন নিশাম। তিনি জানান যে, রোজ সকালে বেয়ারস্টোকে উপহারের ঝুড়ি পাঠিয়ে, ব্যাটিং করার সময় তাঁর গাড়ি পরিষ্কার করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়ে অথবা অন্য কোনওভাবে ব্রিটিশ তারকাকে খুশি রাখা উচিত, যাতে তিনি ভালো খেলতে না পারেন।'

বন্ধ করুন