বাংলা নিউজ > ময়দান > Ind vs Pak: বল জায়গায় রেখেছিলাম, ব্যাটিংয়ে যা পেয়েছি মেরেছি- ম্যাচের সেরা নওয়াজের সহজ দর্শন
মহম্মদ নওয়াজ।

Ind vs Pak: বল জায়গায় রেখেছিলাম, ব্যাটিংয়ে যা পেয়েছি মেরেছি- ম্যাচের সেরা নওয়াজের সহজ দর্শন

  • মহম্মদ নওয়াজ প্রথমে দুর্দান্ত বোলিং করেন। সূর্যকুমার যাদবের গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি, মাঝের ওভারগুলিতে টিম ইন্ডিয়ার রানের গতি নিয়ন্ত্রণ করেছিলেন। এর পর চার নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ২০ বলে ৪২ রানের ঝলমলে ইনিংস খেলে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয় পাকিস্তানের দিকে।

রবিবার দুবাইয়ে এশিয়া কাপের সুপার ফোর রাউন্ডের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের জয়ের নায়ক ছিলেন মহম্মদ নওয়াজ। প্রথমে দুর্দান্ত বোলিং করেন। সূর্যকুমার যাদবের গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি, মাঝের ওভারগুলিতে টিম ইন্ডিয়ার রানের গতি নিয়ন্ত্রণ করেছিলেন। এর পর চার নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ২০ বলে ৪২ রানের ঝলমলে ইনিংস খেলে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয় পাকিস্তানের দিকে। অসাধারণ অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের জন্য তিনি ম্যান অফ দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন।

আরও পড়ুন: নওয়াজকে নামিয়ে ফাটকা খেলেছিলেন বাবর, সেটাই হয় ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট

এটা আঁটোসাঁটো বোলিংয়ের ফর্মুলা

ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের পাঁচ উইকেটের জয়ের পর, নওয়াজকে শেষ দুই ম্যাচে তাঁর দুর্দান্ত বোলিং সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল। তিনি বলেছিলেন, ‘একজন বাঁ-হাতি স্পিনারের জন্য ভালো জিনিস হল লাইন এবং লেন্থ, তাই আমি এটাতেই লেগে থাকি এবং ফোকাস করি। প্রথম দিকে, আমি কয়েকটা বল ঘুরানোর চেষ্টা করি, তাতে ব্যাটসম্যানের মনে সন্দেহ জাগে যে বলটা ঘুরছে। এর পরে আমি ভাল লাইন লেন্থের উপর ফোকাস করি।’

আরও পড়ুন: হিরো থেকে জিরো হার্দিক, শেষ ওভারে ভারত হারায় ব্যর্থ হয় কোহলির লড়াই

ব্যাটিং পরিকল্পনা কী ছিল?

ভারতের বিপক্ষে উপরের দিকে চারে ব্যাট করতে পাঠানোর বিষয়ে নওয়াজ বলেন, ‘আমি যখন ব্যাট করতে আসি, তখন লেগ-স্পিনাররা বোলিং করছিল। ছোট-বড় বাউন্ডারির ​​সুবিধাও পাওয়া যাচ্ছিল। তখন ওভার প্রতি ১০ রান দরকার ছিল। আমাকে আক্রমণাত্মক হতে হবে। আমার ধারণা স্পষ্ট ছিল, আমার জোনের প্রতিটি বলেই হিট করতে হবে।’

ধৈর্য ধরে ব্যাট করতে হয়েছে

স্পিনারদের পাশাপাশি ফাস্ট বোলারদের বিরুদ্ধে খেলা শট সম্পর্কে নওয়াজ বলেন, ‘আমি চেষ্টা করে ওভারপ্লে করিনি, যা আপনি কখনও কখনও করতে পারেন যখন আপনি চাপের মধ্যে থাকেন। অনেক সময়ে হাই প্রেশারের খেলায় এমন হয় যে আপনি বল মারতে যান, সেই সময় মন বেসিক থেকে দূরে চলে যায়। এই অবস্থায় আমার ভাবনা ছিল, বল যে দিকে যাবে সে দিকেই মারতে হবে।’

বন্ধ করুন