বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > হারের থেকে শিক্ষা নিয়েছি, নির্দয় ভাবে ম্যাচ শেষ করেছি, প্লেঅফে উঠে তৃপ্ত হার্দিক
লখনউকে হারিয়ে গুজরাটের সেলিব্রেশন (ছবি:এএনআই) (ANI)
লখনউকে হারিয়ে গুজরাটের সেলিব্রেশন (ছবি:এএনআই) (ANI)

হারের থেকে শিক্ষা নিয়েছি, নির্দয় ভাবে ম্যাচ শেষ করেছি, প্লেঅফে উঠে তৃপ্ত হার্দিক

  • বোলারদের প্রশংসা করে হার্দিক বলেন, ‘আমরা জানতাম যে আমরা এই স্কোর রক্ষা করতে পারব। আমাদের বোলিংয়ে এমন ক্ষমতা আছে যে আমরা এই ধরনের ম্যাচ জিততে পারি। আমরা যদি আমাদের দলে সাফল্য পাই তবে আমরা বিশ্বাস করি যে পুরো দল সাফল্য পেয়েছে।’

২০২২ আইপিএল-এ আত্মপ্রকাশ করেছিল গুজরাট টাইটানস। চলতি মরশুমে প্রথম দল হিসাবে প্লে অফে নিজেদের জায়গা নিশ্চিত করল তারা। মঙ্গলবার পুণের এমসিএ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত আইপিএল ২০২২-এর ৫৭তম লিগ ম্যাচে হার্দিক পান্ডিয়ার নেতৃত্বাধীন গুজরাট দল লখনউ সুপার জায়ান্টসকে ৬২ রানে পরাজিত করে। এর সাথে গুজরাট টাইটানস আইপিএল-এর চলতি মরশুমে প্লে অফে পৌঁছানোর প্রথম দল হয়েছে। গুজরাটের অ্যাকাউন্টে এখন ১৮ পয়েন্ট রয়েছে। প্লে অফে পৌঁছনোর জন্য অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া নিজের খেলোয়াড়দের প্রশংসা করেছেন।

ম্যাচের পর হার্দিক বলেন, ‘কখনও ভাবিনি যে আমরা এই আইপিএলে এই পর্যায়ে পৌঁছতে পারব। আমাদের খেলোয়াড়দের প্রতি আমাদের আস্থা ছিল কিন্তু আমরা কখনই ভাবিনি যে ১৪টি ম্যাচের আগেই আমরা প্লে অফে পৌঁছে যাব। আমি সাই কিশোরকে খুব ভালো বোলার মনে করি। আমাদের দলে অনেক ভালো ফাস্ট বোলার আছে, যার কারণে তারা সুযোগ পাচ্ছে না। যদিও আজ পিচ অনুযায়ী তাকে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।’ 

বোলারদের প্রশংসা করে হার্দিক বলেন, ‘আমরা জানতাম যে আমরা এই স্কোর রক্ষা করতে পারব। আমাদের বোলিংয়ে এমন ক্ষমতা আছে যে আমরা এই ধরনের ম্যাচ জিততে পারি। আমরা যদি আমাদের দলে সাফল্য পাই তবে আমরা বিশ্বাস করি যে পুরো দল সাফল্য পেয়েছে এবং যখন দল হেরে যায় তখন আমরা মনে করি পুরো দল হেরেছে। আমরা কোনও একজন খেলোয়াড়কে দোষ দিই না যে আমরা তার কারণে ম্যাচ হেরেছি।’

পরাজয়ের পরে লখনউ সুপার জায়ান্টসদের এখনও প্লে অফে যোগ্যতা অর্জনের সুযোগ রয়েছে। লখনউকে আরও দুটি ম্যাচ খেলতে হবে এবং যদি দলটি একটি ম্যাচ জিততে পারে তবে তারাও প্লে অফে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। উভয় ম্যাচ হেরে গেলেও দলের প্লে অফে পৌঁছানোর সম্ভাবনা থাকবে। কারণ যে দলটি ১৬ পয়েন্ট অর্জন করেছে তারা সম্ভবত আইপিএল-এর ইতিহাসে কখনও প্লে-অফের দৌড় থেকে বাদ পড়েনি।

এই ম্যাচের কথা বলতে গিয়ে গুজরাট টাইমসের অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। গুজরাট ২০ ওভারে চার উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রান করেছিল। ঋদ্ধিমান সাহা ৫, ম্যাথিউ ওয়েড ১০, হার্দিক পান্ডিয়া ১১, ডেভিড মিলার ২৬, শুভমন গিল ৬৩ এবং রাহুল তেওয়াতিয়া ২২ রান করেন। লখনউ থেকে আভেশ খান ২টি করে উইকেট পান। আর জেসন হোল্ডার ও মহসিন খান একটি করে উইকেট পান। জবাবে মাত্র ১৩.৫ ওভারে ৮২ রানের মধ্যেই লখনউকে আটকে দেয় হার্দিকরা। ৬২ রানে পরাজিত হয় কেএল রাহুলরা। এদিন রশিদ খান চারটি উইকেট শিকার করেছেন।

বন্ধ করুন