বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > নিষিদ্ধ ড্রাগ নিয়ে একদা নির্বাসিত হয়েছিলেন, ৪ বছর পরে IPL-এ ফিরেই ডু'প্লেসিকে ফেরালেন কোহলির যুব বিশ্বকাপজয়ী দলের সতীর্থ
ডু'প্লেসিকে ফেরানোর পরে সাঙ্গওয়ানকে অভিনন্দন সতীর্থদের। ছবি- আইপিএল।
ডু'প্লেসিকে ফেরানোর পরে সাঙ্গওয়ানকে অভিনন্দন সতীর্থদের। ছবি- আইপিএল।

নিষিদ্ধ ড্রাগ নিয়ে একদা নির্বাসিত হয়েছিলেন, ৪ বছর পরে IPL-এ ফিরেই ডু'প্লেসিকে ফেরালেন কোহলির যুব বিশ্বকাপজয়ী দলের সতীর্থ

  • কোহলির থেকেও প্রতিভাবান ছিলেন, এমনটাই মনে করা হতো প্রদীপ সাঙ্গওয়ান সম্পর্কে। সেকারণেই ২০০৮-এর যুব বিশ্বকাপজয়ী দল থেকে কোহলিকে ছেড়ে তাঁকে প্রথমে বেছে নিয়েছিল দিল্লি ফ্র্যাঞ্চাইজি।

দীর্ঘ চার বছর পরে ফের আইপিএলে মাঠে নামার সুযোগ পেলেন প্রদীপ সাঙ্গওয়ান। প্রথম ওভারেই ফ্যাফ ডু'প্লেসির উইকেট তুলে নিয়ে নিজের আইপিএল কামব্যাক স্মরণীয় করে রাখলেন দিল্লির অভিজ্ঞ পেসার, যাঁর ব্যাটের হাতটাও মন্দ নয়।

সাঙ্গওয়ান শেষবার আইপিএল ম্যাচ খেলেন ২০১৮ সালে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে। সেবছর তাঁকে মাত্র ১টি ম্যাচে মাঠে নামায় মুম্বই। ব্যাট হাতে কোনও রান করতে পারেননি। ২ ওভার বল করে কোনও উইকেটও পাননি তিনি। এবছর মেগা নিলাম থেকে সাঙ্গওয়ানকে দলে নেয় গুজরাট টাইটানস। অবশেষে আরসিবির বিরুদ্ধে এই ম্যাচে প্রথমবার মাঠে নামার সুযোগ পান প্রদীপ।

আরও পড়ুন:- IPL 2022: ‘৩ বছরের অপেক্ষার পর সুযোগ পেয়ে মা-বাবার স্বপ্ন পূরণ করেছি’: মহসিন খান

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই সাঙ্গওয়ানকে বল করতে পাঠায় গুজরাট। ওভারের পঞ্চম বলে তিনি তুলে নেন আরসিবি দলনায়ক ফ্যাফ ডু'প্লেসির মূল্যবান উইকেট। সেই ওভারে ১ রান খরচ করেন প্রদীপ। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে দ্বিতীয়বার বল করতে এসে মাত্র ২ রান খরচ করেন সাঙ্গওয়ান। কোনও উইকেট পাননি। ষষ্ঠ ওভারে নিজের স্পেলের তৃতীয় ওভার বল করেন প্রদীপ। ৯ রান খরচ করেও কোনও উইকেট পাননি। সব মিলিয়ে প্রথম ৩ ওভারে ১২ রান খরচ করে ১টি উইকেট নেন প্রদীপ।

ইনিংসের ১৫তম ওভারে নিজের কোটার শেষ ওভার বল করতে আসেন সাঙ্গওয়ান। প্রথম বলেই তুলে নেন রজত পতিদারের উইকেট। সেই ওভারে তিনি ৭ রান খরচ করেন। সুতরাং, কামব্যাক ম্যাচে ৪ ওভার বল করে সাঙ্গওয়ান ১৯ রানের বিনিময়ে ২টি উইকেট দখল করেন।

২০০৮ সালে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দল থেকে বিরাট কোহলি ও প্রদীপ সাঙ্গওয়ানকে সরাসরি আইপিএল ড্রাফটে জায়গা করে দেওয়া হয়। দিল্লি ডেয়ারডেভিলস প্রথমে সাঙ্গওয়ানকে দলে নেয়। পরে আরসিবি দলে নেয় কোহলিকে। যদিও আরসিবির সিদ্ধান্তই সঠিক প্রমাণিত হয় শেষমেশ।

আরও পড়ুন:- IPL 2022: শাপে বর হায়দরাবাদের, Covid-এর জন্যই এত তাড়াতাড়ি স্পটলাইটে উমরান

২০১৩ সালে ডোপ টেস্টে ধরা পড়ায় প্রদীপ সাঙ্গওয়ানকে ১৮ মাসের জন্য নির্বাসিত করেছিল বিসিসিআই। তাঁর নির্বাসনের মেয়াদ শুরু হয়েছিল সেবছর ৬ মে তারিখ থেকে। নির্বাসন উঠে যায় ২০১৪ সালের ৫ নভেম্বর মাঝরাতে।

বন্ধ করুন