বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2023 > শুভমন গিলের রেকর্ড ব্রেকিং সেঞ্চুরির পরে ভাইরাল হচ্ছে বিরাট কোহলির বিস্ফোরক প্রতিক্রিয়া

শুভমন গিলের রেকর্ড ব্রেকিং সেঞ্চুরির পরে ভাইরাল হচ্ছে বিরাট কোহলির বিস্ফোরক প্রতিক্রিয়া

বিরাট কোহলি ও শুভমন গিল

বিরাট কোহলি তাঁর ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে শুভমন গিলের ছবি পোস্ট করার সময় কোনও শব্দ লেখেননি, সম্ভবত এই ইনিংসের পরে সেটার কোনও প্রয়োজন নেই। তবে কোহলি অবশ্যই স্টারের একটি ইমোজি তৈরি করেছেন যা এই তরুণ খেলোয়াড়ের উৎসাহ বাড়িয়ে দেবে। যথেষ্ট কোহলির এই পোস্টের স্ক্রিনশট সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হচ্ছে।

আইপিএল ২০২৩-এর দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে, গুজরাট টাইটানসের ওপেনার শুভমন গিল ঝোড়ো সেঞ্চুরি করে সকলের নজর কেড়েছিলেন। গিল ৬০ বলে ৭টি চার ও ১০টি আকাশচুম্বী ছক্কার সাহায্যে ১২৯ রানের ঝলমলে ইনিংস খেলেন। চলতি মরশুমে এটি তাঁর তৃতীয় সেঞ্চুরি। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে শুভমন গিলের সেঞ্চুরি নিয়ে আরসিবি তারকা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি নিজের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন, যা এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন… তরুণদের ছড়াছড়ি, তবুও পরের বছরের টি২০ বিশ্বকাপে কোহলিকে চান গাভাসকর

বিরাট কোহলি তাঁর ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে শুভমন গিলের ছবি পোস্ট করার সময় কোনও শব্দ লেখেননি, সম্ভবত এই ইনিংসের পরে সেটার কোনও প্রয়োজন নেই। তবে কোহলি অবশ্যই স্টারের একটি ইমোজি তৈরি করেছেন যা এই তরুণ খেলোয়াড়ের উৎসাহ বাড়িয়ে দেবে। যথেষ্ট কোহলির এই পোস্টের স্ক্রিনশট সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হচ্ছে।

আরও পড়ুন… ভিডিয়ো: একটানা ৩ মিনিট ধরে চলল ২১১ শটের একটি র‍্যালি! ঘোর কাটছে না ব্যাডমিন্টন বিশ্বের

গত চার ইনিংসে এটি শুভমন গিলের তৃতীয় সেঞ্চুরি। তিনি বিশ্বের দ্বিতীয় এবং প্রথম ভারতীয় খেলোয়াড় হিসেবে এমনটি করেছেন। গিলের আগে, চার ইনিংসে তিনটি সেঞ্চুরি করার রেকর্ড ছিল মাইকেল ক্লিঞ্জারের নামে, যিনি ২০১৪ সালে এই কীর্তি করেছিলেন। এই ইনিংসের পরে শুভমন গিল আইপিএল ২০২৩-এ সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হয়েছেন। ১৬টি ম্যাচে তাঁর বর্তমান রান সংখ্যা ৮৫১ রান। সিএসকে-র বিরুদ্ধে ফাইনালে তিনি ৯০০ রানের ছোঁয়ার দিকে তাকিয়ে থাকবেন।

আরও পড়ুন… French Open 2023 Draw: প্রকাশিত হল ড্র, সেমিফাইনালে জকোভিচ মুখোমুখি হতে পারেন বিশ্বের এক নম্বর আলকারাজ

কোয়ালিফায়ার-২-এ মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন। ৩০ রানের ব্যক্তিগত স্কোরে শুভমন গিলের ক্যাচটি মিড-অনে টিম ডেভিডের হাতে ধরা পড়লে খেলার রঙ অন্য হতেই পারত। গিলের ক্যাচ ড্রপের পর মনে হল মুম্বই দলে সন্ধ্যা হয়ে এসেছে। জিটি-র এই ওপেনার এই জীবন দানের পর আরও ৯৯ রান করেন এবং মরশুমের তৃতীয় সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তিনি। গিলের সেঞ্চুরির ফলে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা মুম্বই ইন্ডিয়ান্সদের বিরুদ্ধে বিশাল ২৩৩ রানের স্কোর তোলে।

(আইপিএলের আরও খবরের জন্য ক্লিক করুন এই লিঙ্কে- https://bangla.hindustantimes.com/sports/ipl) 

এটি ছিল আইপিএলের ইতিহাসে প্লে অফে যে কোনও দলের সর্বোচ্চ স্কোর, তাই চাপটা এমআই-এর ওপর আসতে বাধ্য। ইশান কিষাণের ইনজুরির কারণে রোহিত শর্মার সঙ্গে ওপেন করতে আসেন নেহাল ভাদেরা। তবে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের এই দুই ওপেনারই সস্তায় প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। ১৪ বলে ৪৩ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন তিলক বর্মা। এরপর সূর্যকুমার যাদবও ৩৮ বলে ৬৮ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন। কিন্তু তাঁর আউট হওয়ার পর তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ৫ বারের চ্যাম্পিয়ন দলের ব্যাটিং ইনিংস। শেষ পর্যন্ত মাত্র ১০ রান খরচ করে ১৪ বলে ৫ উইকেট নেন মোহিত শর্মা।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup 

বন্ধ করুন