অভিনেতার সামাজিক বা রাজনৈতিক মতাদর্শের সঙ্গে কোনও ছবিতে গুলিয়ে ফেলা উচিত নয়, বললেন তাপসী (PTI)
অভিনেতার সামাজিক বা রাজনৈতিক মতাদর্শের সঙ্গে কোনও ছবিতে গুলিয়ে ফেলা উচিত নয়, বললেন তাপসী (PTI)

থাপ্পড় বয়কটের ডাক টুইটারে, CAA সমর্থকদের জবাব দিলেন তাপসী পান্নু

  • বৃহস্পতিবার দিনভর টুইটারে ট্রেন্ড করেছে বয়কট থাপ্পড়।ডিসেম্বর মাসে জেএনইউয়ের পড়ুয়ার প্রতি সমবেদনা দেখিয়ে মুম্বইয়ে আয়োজিত এক প্রতিবাদ মিছিলে পা মিলিয়ে ছিলেন তাপসী এবং থাপ্পড় পরিচালক অনুভব সিনহা। তাই গেরুয়া রোষের মুখে থাপ্পড়।

বৃহস্পতিবার দিনভর টুইটারে ট্রেন্ড করেছে বয়কট থাপ্পড়। দীপিকা পাড়ুকোনের ছপাকের পর এবার সিএএ-র সমর্থকের নিশানায় তাপসী পান্নুর থাপ্পড়। সিএএ-র বিরোধীয় শুরু থেকেই সরব তাপসী পান্নু এবং ছবির পরিচালক অনুভব সিনহা। সেই কারণেই গেরুয়া শিবিরের রোষের মুখে পড়তে হচ্ছে এই ছবিকে। ডোমেস্টিক ভায়োলেন্সের মতো সংবেদনশীল সামাজিক বিষয়ের প্রেক্ষাপটে তৈরি হয়েছে এই ছবি। সিএএ সমর্থকদের এই বিরোধীতা নিয়ে এবার জবাব দিলেন তাপসী পান্নু। টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে তাপসী বলেছেন, 'কোনও অভিনেতার ব্যক্তিগত মতামত তাঁর পেশাকে প্রভাবিত করবে এটা অনুচিত, সেটা উচিত নয়। ১০০০-২০০০টা টুইট হলেও সেটা ট্রেন্ডিং বিষয় হয়ে যায়। সেটা কী সত্যি একটা ছবিকে প্রভাবিত করে? আমার মনে হয় না। হতে পারে আমার সামাজিক বা রাজনৈতিক মতাদর্শ আলাদা অনেক মানুষের থেকে, তাই বলে কেউ কোনও ছবি দেখতে যাবে না? একটা ছবি একজন অভিনেতার উর্দ্ধে। একটা ছবির সঙ্গে কয়েকশো মানুষ যুক্ত থাকে। এটা বোকামি যে একজন অভিনেতার সামাজিক এবং রাজনৈতিক মতাদর্শের উপর ভিত্তি করে আপনি ঠিক করবেন কোন ছবি আপনি দেখবেন!'

ডিসেম্বর মাসে জেএনইউয়ের পড়ুয়ার প্রতি সমবেদনা দেখিয়ে মুম্বইয়ে আয়োজিত এক প্রতিবাদ মিছিলে পা মিলিয়ে ছিলেন তাপসী এবং থাপ্পড় পরিচালক অনুভব সিনহা। প্রতিবাদে সামিল হওয়া সম্পর্কে তাপসী জানিয়েছিলেন, ‘আমি সিএএ সম্পর্কে নিজের মতামত দিই নি কারণ আমি সেটা নিয়ে পড়াশোনা করিনি। কিন্তু জামিয়াতে আমি যা ছবি দেখেছি,সেটা আমাকে নাড়িয়ে দিয়েছে। আমি দুঃখ পেয়েছি সেই সব ভিডিয়ো দেখে যেখানে ছাত্ররা নিজেদের পরিস্থিতির কথা জানিয়েছে। আমার মনে হয়েছি বড় কিছু ঘটেছে বা ঘটতে চলেছে’।

জেএনইউয়ের পড়ুয়াদের সমর্থনে তাপসীর টুইট
জেএনইউয়ের পড়ুয়াদের সমর্থনে তাপসীর টুইট

শুক্রবার মুক্তি পেল থাপ্পড়। এর আগে পরিচালক অনুভব সিনহার সঙ্গে মুলক ছবিতে কাজ করেছেন তাপসী। ছবিতে এক সাধারণ গৃহবধূ অমৃতা ওরফে আম্মুর চরিত্রে রয়েছেন তাপসী। থাপ্পড়ে অভিনেত্রীর অনস্ক্রিন স্বামীর ভূমিকায় রয়েছেন পাভেল গুলাটি। স্বামী চড় মেরেছে, শুধু এই কারণে স্বামীর বিরুদ্ধে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা দায়ের করে আম্মু। গোটা পরিবার তাপসীকে বোঝানোর চেষ্টা করে একটা চড় খুব সাধারণ বিষয়,এমনটা তো হতেই পারে। মেয়েদের তো একটুকু অ্যাডজাস্টমেন্ট তো করে নিতেই হয়, তবুও নিজের অবস্থানে অনড় আমু। কারণ তাঁর প্রশ্ন,'হ্যাঁ একটাই থাপ্পড়, কিন্তু মারবে কেন'?


বন্ধ করুন