বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Pathaan Screening time: ভোর ৬টা থেকেই পাঙ্গা নেবে পাঠান, তাও কুলানো যাচ্ছে না টিকিটের চাহিদা

Pathaan Screening time: ভোর ৬টা থেকেই পাঙ্গা নেবে পাঠান, তাও কুলানো যাচ্ছে না টিকিটের চাহিদা

ভোর ৬টা থেকেই পাঙ্গা নেবে পাঠান

Pathaan Screening time: ফার্স্ট ডে ফার্স্ট শোয়ের এত চাহিদা যে কুলিয়ে উঠতে পারছে না হল মালিকেরা! প্রথম শো দেখানো হবে সকাল ৬টায়!

আর দুদিন, ব্যাস তারপরই দীর্ঘ চার বছর পর বড়পর্দায় দেখা যাবে শাহরুখ খানকে। ভক্তদের উচ্ছ্বাস এখন লাগাম ছাড়া। ব্যাক কাউন্টিং শুরু করে দিয়েছেন অনেকেই! সমস্ত শাহরুখ ভক্তই এখন পাঠান জ্বরে আক্রান্ত। প্রথম দিনের প্রায় প্রতিটা শো ইতিমধ্যে হাউজফুলের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে। টিকিটের চাহিদা উত্তরোত্তর বাড়ছে। কেউ কেউ তো খোদ কিং খানকেই বলছেন ফার্স্ট ডে ফার্স্ট শোয়ের টিকিটের ব্যবস্থা করে দিতে! তাহলেই বুঝুন অবস্থা। পারদ কোন পর্যায়ে পৌঁছেছে এখানেই স্পষ্ট। এমতাবস্থায় টিকিটের চাহিদা সামাল দিতে ভারতে প্রিমিয়াম ফরম্যাটে এই ছবির প্রদর্শন শুরু হবে সকাল ৬টা থেকে! এই ছবিতে শাহরুখ খান ছাড়াও দেখা যাবে দীপিকা পাড়ুকোন এবং জন আব্রাহামকে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে যে যশ রাজ ফিল্মস সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইম্যাক্স ২ ডি, ডি বক্স ২ ডি, সিজিভি ৪ ডিএক্স, পিভিআর পি এক্সএল, ইত্যাদিতে প্রিমিয়াম ফরম্যাটে এই ছবি দেখানো হবে। অতিরিক্ত চাহিদার কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যতদূর জানা গিয়েছে, অ্যাডভান্স বুকিংয়েই এই ছবি ৩৫-৪০ কোটি টাকার ব্যবসা করে ফেলেছে! এখনও আরও দুদিন বাকি, ফলে সংখ্যাটা আরও বেশ খানিকটা বাড়বে বলেই মনে করা।

ট্রেড অ্যানালিস্ট তোরণ আদর্শ জানিয়েছেন যে এই ছবি নিয়ে উন্মাদনা দেখার মতো। টিকিটের চাহিদাও রয়েছে দারুণ। ফলে এই ছবির অ্যাডভান্স বুকিং যেভাবে হচ্ছে সেটা যে ইন্ডাস্ট্রির জন্য দারুণ সুসংবাদ সেটা বলাই যায়।

অন্যদিকে বলিউডের বেতাজ বাদশাহও তাঁর মতো করে এই ছবির প্রচার চালাচ্ছেন। টুইটারে তাঁকে আস্ক মিই এনিথিং সেশন করতে দেখা যাচ্ছে ঘনঘন। ভক্তদের প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন খোদ পাঠান। ফলে সর্বত্রই যেন ৪ বছর পর শাহরুখের এই ফিরে আসা নিয়ে উদযাপন শুরু হয়ে গিয়েছে। এই গত ৪ বছরে তাঁকে সেই অর্থে দেখা যায়নি বললেই চলে। আর সেই কারণেই হয়তো পছন্দের অভিনেতাকে এত বছর পর পর্দায় দেখার আনন্দ, লোভ কোনওটাই সামলাতে পারছেন না দর্শকরা। সেই কারণেই মনে করা হচ্ছে এই পাগল করা টিকিটের চাহিদা।

কিন্তু এই ছবির নির্মাতা, সিদ্ধার্থ আনন্দকে কিন্তু সেই অর্থে এই ছবির প্রচার করতে দেখা যায়নি। কিন্তু কেন? এই প্রশ্নের উত্তর পরিচালক জানিয়েছেন, 'এসআরকে, এই তিনটি অক্ষর যথেষ্ট। তাঁর যা স্টারডম , তাঁকে লোকে যতটা ভালোবাসে সেটা দেখার মতো। গোটা দেশ তাঁর ছবির জন্য অপেক্ষা করে আছে। আর আমরা আশাবাদী যে এই ছবিতে শাহরুখকে যেভাবে দেখা যাবে সেভাবে তাঁকে আগে দেখা যায়নি। আর তিনি গত ৪ বছর প্রায় লোক চক্ষুর আড়ালে ছিলেন। সেভাবে সামনে আসেননি। সেই কারণেই হয়তো আরও বেশি এই উন্মাদনা তৈরি হয়েছে। মানুষ ছবিটা নিয়ে এত আলোচনা করছে। এখানে আলাদা করে প্রচারের জায়গা নেই।'

বন্ধ করুন