শ্রমিকদের জন্য কোনও ট্রেন চালাবে না রেল (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এপি)
শ্রমিকদের জন্য কোনও ট্রেন চালাবে না রেল (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এপি)

COVID-19 Updates: শ্রমিকদের জন্য কোনও ট্রেন চালাবে না রেল, বর্ধিত লকডাউনে বাতিল হবে ৩৯ লাখ টিকিট

  • আপাতত যাবতীয় অ্যাডভান্সড বুকিং বন্ধ করে দিয়েছে রেল।

আগামী ৩ মে পর্যন্ত দেশের সমস্ত যাত্রীবাহী রেল পরিষেবা বাতিল থাকবে। কোনও বিশেষ ট্রেন চালানো হবে না। বান্দ্রায় শ্রমিক জমায়েতের পর সাফ জানিয়ে দিল ভারতীয় রেল।

আরও পড়ুন : COVID-19 Updates: বিশে এপ্রিল থেকে কোন কোন ক্ষেত্রে ছাড় মিলতে পারে, নির্দেশিকায় জানাল কেন্দ্র

দেশে লকডাউনের মেয়াদ ১৯ দিন বাড়ানোর পর শ্রমিকরা মঙ্গলবার বান্দ্রা স্টেশনের বাইরে জড়ো হয়েছিলেন। তাঁদের দাবি ছিল, বাড়ি ফেরার জন্য় ট্রেন পরিষেবা চালু করতে হবে। সেই জমায়েত ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। পুলিশের লাঠিচার্জে ঘণ্টাদুয়েক পর ছত্রভঙ্গ হয়েছিলেন শ্রমিকরা। মহারাষ্ট্র সরকারও পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরার জন্য ট্রেন চালানোর আর্জি জানায়।

আরও পড়ুন : COVID-19 Updates: 'টাকা শেষ, খাবার নেই', বাড়ি ফিরতে চেয়ে বান্দ্রায় আকুতি মালদার শ্রমিকের

যদিও রাতের দিকে রেলের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়, ৩ মে পর্যন্ত দেশে কোনও যাত্রীবাহী ট্রেন চলবে না। একটি টুইটবার্তায় রেল মন্ত্রকের তরফে বলা হয়, 'এটা পরিষ্কার করে বলা হয়েছে যে ৩ মে পর্যন্ত দেশের সর্বত্র যাত্রীবাহী ট্রেন পরিষেবা পুরোপুরি বাতিল করা হয়েছে। কোনও যাত্রী ভিড় কাটানোর জন্য কোনও বিশেষ ট্রেন চালানোর পরিকল্পনা নেই। সবাই বিষয়টি খেয়াল রাখুন ও এই বিষয়ে কোনও ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়া আটকান।'

আরও পড়ুন : এক দিনে অসুস্থ ২৩, রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২১৩

এদিকে, সূত্র উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, বর্ধিত লকডাউনের জন্য ৩ মে পর্যন্ত প্রায় ৩৯ লাখ টিকিট বাতিল করবে রেল। প্রথম পর্যায়ে লকডাউনের মেয়াদ শেষের পরদিন অর্থাৎ ১৫ এপ্রিল থেকে টিকিট বুকিং চালু ছিল। ফলে যাত্রীদের আশা ছিল, ১৫ এপ্রিল থেকে ট্রেল চলাচল শুরু করবে। কিন্তু লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির পর রেল জানিয়ে দেয়, ৩ মে পর্যন্ত সব যাত্রীবাহী ট্রেন থাকবে। ফলে ৯,০০০ প্যাসেঞ্জার ও ৩,০০০ মেল ট্রেন-সহ প্রায় ১৫,৫২৩ ট্রেনের উপর প্রভাব পড়বে।

আরও পড়ুন : কোনও নির্দিষ্ট এলাকায় টানা ২৮ দিন করোনা আক্রান্তের হদিশ না পাওয়ার অর্থ কী?

একইসঙ্গে যাবতীয় অ্যাডভান্সড বুকিং বন্ধ করে দিয়েছে রেল। ৩ মে পর্যন্ত যাত্রার জন্য যে যাত্রীরা অনলাইনে টিকিট কেটেছিলেন, তাঁদের সরাসরি টিকিটের পুরো টাকা ফেরত দেওয়া হবে। যাঁরা কাউন্টার থেকে টিকিট কেটেছিলেন, তাঁরা ৩১ জুলাই পর্যন্ত টাকা ফেরত নিতে পারবেন। পাশাপাশি, যে ট্রেনগুলি এখনও বাতিল হয়নি সেই ট্রেনগুলির টিকিট ক্যানসেল করলেও পুরো টাকা মিলবে বলে জানিয়েছে রেল।

বন্ধ করুন