বাংলা নিউজ > ময়দান > Sakshi Malik Wins Gold: হারতে হারতে এক ঝটকায় প্রতিপক্ষকে চিৎ করে সোনা জিলনে সাক্ষী
সোনা জিতলেন সাক্ষী। ছবি- পিটিআই (PTI)

Sakshi Malik Wins Gold: হারতে হারতে এক ঝটকায় প্রতিপক্ষকে চিৎ করে সোনা জিলনে সাক্ষী

  • এই প্রথম কমনওয়েলথ গেমসের গোল্ড মেডেল গলায় ঝোলালেন সাক্ষী মালিক।

বার্মিংহ্যাম কমনওয়েলথ গেমসের কুস্তি থেকে ভারতকে তৃতীয় পদক এনে দিলেন সাক্ষী মালিক। মেয়েদের ফ্রি-স্টাইল কুস্তির ৬২ কেজি বিভাগে সোনা জেতেন সাক্ষী। চলতি কমনওয়েলথ গেমসের কুস্তিতে এটি ভারতের দ্বিতীয় সোনা। সাক্ষী গোল্ড মেডেল বাউটে হারিয়ে দেন কানাডার অ্যানা গডিনেজ গঞ্জালেজকে।

গোল্ড মেডেল বাউটের শুরুতে আক্রমণ করতে গিয়ে ভুল করে বসেন সাক্ষী। প্রতিআক্রমণে সাক্ষীকে টেক ডাউন করে ২ পয়েন্ট সংগ্রহ করেন অ্যানা। প্রথম রাউন্ডেই একই ভুলের পুনারাবৃত্তি করেন সাক্ষী। ফলে ফের তাঁকে ২ পয়েন্ট খোয়াতে হয়। প্রথম রাউন্ডে সাক্ষী ০-৪ পয়েন্টে পিছিয়ে পড়েন।

দ্বিতীয় রাউন্ডে সাক্ষী এক ঝটকায় ৪ পয়েন্ট সংগ্রহ করেন নেন এবং কানাডিয়ান তারকাকে চিৎ করে (৪-৪) ফাইনাল বাউট জিতে নেন। সেই সঙ্গে বার্মিংহ্যাম কমনওয়েলথ গেমস থেকে ভারতকে সার্বিকভাবে ৮ নম্বর স্বর্ণ পদক এনে দেন সাক্ষী।

আরও পড়ুন:- CWG 2022 Wrestling: ছয়ে ছয়, প্রথম দিনেই কুস্তি থেকে ৬টি মেডেল জিতল ভারত

এই প্রথম কমনওয়েলথ গেমসের গোল্ড মেডেল গলায় ঝোলালেন সাক্ষী মালিক। এর আগে ২০১৪ সালে গ্লাসগো কমনওয়েলথ গমসের ৫৮ কেজি বিভাগে রুপো জিতেছিলেন সাক্ষী। পরে ২০১৮ সালে গোল্ড কোস্টের ৬২ কেজি বিভাগে ব্রোঞ্জ জেতেন তিনি। এবার পদকের রং বদলে নেন রিও অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ জয়ী সাক্ষী মালিক।

এর আগে ফ্রি-স্টাইল কুস্তিতে মেয়েদের ৫৭ কেজি বিভাগে রুপো জেতেন অংশু। ফাইনালে ভারতীয় তারকা ৩-৭ ব্যবধানে হেরে যান নাইজেরিয়ার ওডুনায়ো আদেকুরয়ির কাছে। পরে ছেলেদের ৬৫ কেজি বিভাগে সোনা জেতেন বজরং পুনিয়া। ফাইনালে বজরং ৯-২ ব্যবধানে হারিয়ে দেন কানাডার লাচলান ম্যাকনেইলকে।

আরও পড়ুন:- Deepak Punia Wins Gold: কুস্তির ম্যাটে পাকিস্তানকে হারিয়ে সোনা জিতল ভারত, নায়ক দীপক পুনিয়া

কোন পথে এল সাক্ষীর সোনার পদক:-
কোয়ার্টার ফাইনাল: মেয়েদের ৬২ কেজি বিভাগের কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ডের কেলসি বার্নসের বিরুদ্ধে জয় তুলে নেন সাক্ষী মালিক। কার্যত ১ মিনিটেই কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াই জিতে নেন সাক্ষী এবং সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেন। ১০-০-র ব্যবধান তৈরি করে টেকনিক্যাল সুপিরিয়রিটির নিরিখে বাজিমাত করেন ভারতীয় তারকা।

সোমিফাইনাল: সাক্ষী মালিক ৬২ কেজি বিভাগের সেমিফাইনালে ১০-০ ব্যবধানে হারিয়ে দেন শ্রীলঙ্কার নেথমি পরুথোটেগকে এবং ফাইনালের যোগ্যতা অর্জন করেন।

ফাইনাল: গোল্ড মেডেল বাউটে সাক্ষী কানাডার অ্যানা গডিনেজ গঞ্জালেজকে চিৎ করে (৪-৪) চ্যাম্পিয়ন হন।

বন্ধ করুন