বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > IPL-এ খেলার সময় ওয়ার্কলোডের কথা মনে থাকে না?- রোহিতদের তুলোধুনো করলেন গাভাসকর

IPL-এ খেলার সময় ওয়ার্কলোডের কথা মনে থাকে না?- রোহিতদের তুলোধুনো করলেন গাভাসকর

ওয়ার্কলোড নিয়ে রোহিতদের ধুইয়ে দিলেন গাভাসকর।

ওয়ার্কলোড ম্যানেজমেন্ট প্রসঙ্গে গাভাসকর বলেছেন, ‘‌সব ক্রিকেটারকে আইপিএলের পুরো মরশুম খেলতে হয়। গোটা প্রতিযোগিতায় ভারত জুড়ে এই প্রান্ত থেকে ওই প্রান্তে সফর করতে হয়। তখন ক্রিকেটাররা ক্লান্ত বোধ করে না?‌’

শুভব্রত মুখার্জি: ইংল্যান্ডের কাছে হেরে টি-২০ বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পরেই সমালোচনায় বিদ্ধ হচ্ছেন রোহিত শর্মারা। রোহিতের অধিনায়কত্ব, টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত, পাওয়ার প্লে-তে ভারতের ব্যাটিং বিপর্যয়, নির্বিষ বোলিং- আক্রমণের লক্ষ্যবস্তু সব কিছুই। এর মাঝেই রোহিতদের একেবারে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করলেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার সুনীল গাভাসকর। তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য, আইপিএলে খেলার সময়ে তোমাদের ওয়ার্কলোডের কথা মনে থাকে না! দেশের হয়ে খেলার সময়েই যত সমস্যা ?

ওয়ার্কলোড ম্যানেজমেন্ট প্রসঙ্গে গাভাসকর বলেছেন, ‘‌সব ক্রিকেটারকে আইপিএলের পুরো মরশুম খেলতে হয়। গোটা প্রতিযোগিতায় ভারত জুড়ে এই প্রান্ত থেকে ওই প্রান্তে সফর করতে হয়। তখন ক্রিকেটাররা ক্লান্ত বোধ করে না?‌ দেশের হয়ে খেলার কথা উঠলেই তাঁদের ওয়ার্কলোডের কথা মনে পড়ে যায়? ওয়ার্কলোডের কথা তখনই মাথায় আসে, যখন এমন একটা দেশে দল খেলতে হবে যেখানে ক্রিকেটে তেমন গ্ল্যামার নেই ! এই ধারণা বদলাতে হবে। এটা সম্পূর্ণ ভুল একটা ধারণা।’

আরও পড়ুন: টানা ৫ দিন ধরে ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস, T20 WC-এর ফাইনাল ঘিরে তীব্র অনিশ্চয়তা

গাভাসকর আরও যোগ করেছেন, ‘নিউজিল্যান্ড সফরে ভারতীয় দলে একাধিক পরিবর্তন করা হয়েছে। যখনই আমরা এই ওয়ার্কলোড নিয়ে কথা বলি, ভারতের হয়ে খেলা হলেই তা কেন হয়? কীর্তি আজাদ এবং মদনলাল তো একদম ঠিক বলেছে। শুধু ভারতের হয়ে খেলার সময় ক্রিকেটারদের ওয়ার্কলোডের কথা মনে পরে যায়! যদি কেউ ফিট থাকে, তাহলে ওয়ার্কলোডের প্রশ্ন কোথা থেকে আসছে? ক্রিকেটারদের এত বেশি মাথায় তোলাটা বন্ধ করা হোক। ক্রিকেটারদের দলে নেওয়া হচ্ছে, রিটেনার ফি দেওয়া হচ্ছে। যদি ওয়ার্কলোডের জন্য খেলতে না পারে,তা হলে রিটেনার ফি কেটে নেওয়া উচিত। এটা চালু হলে অনেক ক্রিকেটার ওয়ার্কলোডের কথা ভুলে খেলা শুরু করবেন, দেখবেন। এটা হলে পরিবর্তন আসবে। একটা ম্যাচ না খেললে রিটেনার ফি কাটা হবে, ক্রিকেটারদের এই বার্তা দিলে অনেকেই তখন কাজের চাপ ভুলে খেলতে আসবে। ফিকা (ক্রিকেটারদের অ্যাসোসিয়েশন) একই কথা বলেছিল। যখন আইপিএল এসেছিল, সবাই কাজের চাপ ভুলে গিয়েছিল। নির্বাচক কমিটির এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া দরকার। একটা কঠোর বার্তা দিতে হবে।’‌

আরও পড়ুন: ভিভ না থাকলে ২০০৭ সালেই অবসর নিতেন সচিন, ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পাওয়া হত না

প্রসঙ্গত বিশ্বকাপের ব্যর্থতার পরপরেই যখন হেড কোচ রাহুল দ্রাবিড়, অধিনায়ক রোহিত শর্মা ওয়ার্কলোড ম্যানেজমেন্টের কথা বলেছেন। তখনই তাঁদের উদ্দেশ্যে চাঁচাছোলা আক্রমণ শানিয়েছেন গাভাসকর। বিশ্বকাপের পরেই নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলবে ভারত। আর ওয়ার্কলোডের অজুহাতে নিউজিল্যান্ড সফর থেকে বিশ্রাম পেয়েছেন রোহিত, কোহলি, অশ্বিন, রাহুলরা। প্রসঙ্গত টি-২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটে হারতে হয়েছে ভারতকে। প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সুনীল গাভাসকর আবারও ওয়ার্কলোড ম্যানেজমেন্টের প্রসঙ্গটি তুলে ভারতীয় দলকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেছেন।

বন্ধ করুন