বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs AUS: চোট পাওয়া গ্রিনকে দলে রাখলেও, ব্যাকআপ প্ল্যান তৈরি রাখছেন অজি কোচ

IND vs AUS: চোট পাওয়া গ্রিনকে দলে রাখলেও, ব্যাকআপ প্ল্যান তৈরি রাখছেন অজি কোচ

ক্যামেরন গ্রিন কি পারবেন ভারতের বিরুদ্ধে খেলতে?

২০২২ সালের ডিসেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে বক্সিং ডে টেস্টে একটি আঙুল ভেঙে যাওয়ার পরে ক্যামেরন গ্রিনের অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল। ভারতের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের দলে তাঁকে রাখা হয়েছে ঠিকই, তবে তাঁকে আদৌ খেলানো যাবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ভারত এবং অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে টেস্ট সিরিজ শুরু হবে। এই বর্ডার গাভাসকর ট্রফিতে দুই দল মোট ৪টি টেস্ট ম্যাচ খেলবে। ভারত এই সিরিজের দু'টি টেস্টের জন্য আগেই দল ঘোষণা করেছিল। এ বার এই সিরিজের জন্য দল ঘোষণা করল অস্ট্রেলিয়াও। অস্ট্রেলিয়ার এই দলে কিন্তু রয়েছেন ক্যামেরন গ্রিনও, যিনি হাতের আঙুলের চোটের কারণে ভুগছেন। তবে ধীরে ধীরে চোট সারিয়ে সেরে ওঠার পথে ক্যামেরন গ্রিন।

এমন পরিস্থিতিতে প্রশ্ন উঠছে, সিরিজ শুরুর আগে যদি গ্রিন ফিট না হন, তা হলে তাঁর পরিবর্ত কে হবেন? অবশ্য এই বিষয়ে ধোঁয়াশা না রেখেই স্পষ্ট করে গ্রিনের পরিবর্তের নাম বলে দিয়েছেন অজি দলের কোচ অ্যান্ড্রু ম্যাকডোনাল্ড।

আরও পড়ুন: তুমি এই বলে ম্যাচ শেষ করবে-হার্দিকের কথাতেই বৃদ্ধি পেয়েছিল মনোবল, জানালেন সূর্য

ম্যাকডোনাল্ড ইএসপিএন ক্রিকইনফো-এর সঙ্গে কথোপকথনের সময়ে বলেছেন, ‘ওর (ক্যামেরন গ্রিন) এই মুহূর্তে চোটের যা অবস্থা, তাতে ওর জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে বোলিং। আমাদের নিশ্চিত করতে হবে যে, আমাদের দল তাদের কঠোর পরিশ্রমের জন্য পরিচিত, সেটা ভুললে চলবে না। সবচেয়ে বড় কথা আত্মবিশ্বাস তৈরি করা। তার জন্য প্রথম টেস্ট ম্যাচে সফল হতে হলে আমাদের ওকে প্রস্তুত করতে হবে। ও আমাদের দলের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এই জন্য আমরা ওকে নিয়ে চিন্তিত। কারণ আমরা ওর বোলিংয়ের উপর নির্ভর করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘যদি কোনও কারণে গ্রিন ফিট না হয়, তা হলে আমরা ওর জায়গায় পিটার হ্যান্ডসকম্বকে খেলাতে পারি। স্পিনের বিপক্ষে ভালো ব্যাট করার ক্ষমতা আছে ওর। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মিডল অর্ডারে খেলতে দেখা যাবে ওকে।’ ২০২২ সালের ডিসেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে বক্সিং ডে টেস্টে তাঁর একটি আঙুল ভেঙে যাওয়ার পরে ক্যামেরন গ্রিনের অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন: শাহিনের মানের ধারেকাছে নয় বুমরাহ- লোক হাসালেন পাক প্রাক্তনী

প্রসঙ্গত, হ্যান্ডসকম্ব তাঁর ক্যারিয়ারে ১৬টি আন্তর্জাতিক টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন। এই সময়ে, তিনি ৩৮.৯১ গড়ে ৯৩৪ রান করেছেন। তাঁর সর্বোচ্চ স্কোর ১১০। টেস্ট ক্রিকেটে তাঁর রয়েছে ২টি সেঞ্চুরি।

টেস্ট সিরিজের জন্য অস্ট্রেলিয়ার স্কোয়াড:

প্যাট কামিন্স (সি), অ্যাশটন অ্যাগার, স্কট বোল্যান্ড, অ্যালেক্স ক্যারি, ক্যামেরন গ্রিন, জশ হ্যাজেলউড, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, ট্র্যাভিস হেড, উসমান খোয়াজা, মার্নাস ল্যাবুশেন,, নাথান লিয়ন, ল্যান্স মরিস, টড মারফি, ম্যাথিউ রেনশ, স্টিভ স্মিথ, মিচেল স্টার্ক , মিচেল সুইপসন, ডেভিড ওয়ার্নার।

রোহিতদের প্রস্তুতির রোজনামচা, পাল্লা ভারি কোন দলের, ক্রিকেট বিশ্বকাপের বিস্তারিত কভারেজ, সঙ্গে প্রতিটি ম্যাচের লাইভ স্কোরকার্ড । দুই প্রধানের টাটকা খবর, ছেত্রীরা কী করল, মেসি থেকে মোরিনহো, ফুটবলের সব আপডেট পড়ুন এখানে।

বন্ধ করুন