বাংলা নিউজ > টেকটক > নজরে বৈদ্যুতিক গাড়ি, অটোমোবাইল ক্ষেত্রে ইনসেনটিভ প্রকল্পে অনুমোদন কেন্দ্রের
নজরে দেশে উৎপাদন বৃদ্ধি, অটোমোবাইল ক্ষেত্রে ইনসেনটিভে অনুমোদন কেন্দ্রের: রিপোর্ট। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)
নজরে দেশে উৎপাদন বৃদ্ধি, অটোমোবাইল ক্ষেত্রে ইনসেনটিভে অনুমোদন কেন্দ্রের: রিপোর্ট। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)

নজরে বৈদ্যুতিক গাড়ি, অটোমোবাইল ক্ষেত্রে ইনসেনটিভ প্রকল্পে অনুমোদন কেন্দ্রের

  • ভারতে গাড়ি উৎপাদন এবং কর্মসংস্থান তৈরির লক্ষ্যে বড় পদক্ষেপ করল কেন্দ্র।

দীর্ঘদিন ধরেই ভারতের গাড়ি উৎপাদনের ক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষ্য নিচ্ছে কেন্দ্র। পাখির চোখ করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক এবং হাইড্রোজেন জ্বালানির গাড়িতে। সেজন্য এবার অটোমোবাইল ক্ষেত্রে সংশোধিত ২৫,৯৩৮ কোটি টাকার উৎপাদন সংক্রান্ত বিশেষ উৎসাহ বা ইনসেনটিভ প্রকল্পে (পিএলআই) অনুমোদন দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। সেইসঙ্গে ড্রোন ক্ষেত্রেও ১২০ কোটি টাকার উৎপাদন সংক্রান্ত বিশেষ উৎসাহ প্রকল্পে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর দাবি করেন, উৎপাদন সংক্রান্ত বিশেষ উৎসাহ প্রকল্পের ফলে অটোমোবাইল ক্ষেত্রে ৪২,৫০০ কোটি টাকার নয়া বিনিয়োগ আসবে। ধাপে ধাপে ২.৩ লাখ কোটি টাকারও বেশি মূল্যের উৎপাদন হবে। সেইসঙ্গে ৭.৫ লাখের বেশি বাড়তি চাকরির সুযোগ তৈরি হবে বলে দাবি করেছেন অনুরাগ। কেন্দ্রের দাবি, সেই প্রকল্পের ফলে ভারতেও অত্যাধুনিক অটোমোবাইল প্রযুক্তি আসার পথ প্রশস্ত হবে।

যদিও গত বছর অটোমোবাইল এবং অটোমোবাইল যন্ত্রাংশ ক্ষেত্রের জন্য ৫৭,০৪৩ কোটি টাকার উৎপাদন ভিত্তিক উৎসাহ প্রকল্পের ঘোষণা করেছিল কেন্দ্র। যা পাঁচ বছরের জন্য ছিল। সেই তহবিল কেন কাটছাঁট করা হল? বিষয়টি নিয়ে বুধবার ভারী শিল্প মন্ত্রকের সচিব অরুণ গোয়েল দাবি করেছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে এটাই অটোমোবাইল ক্ষেত্রের চাহিদা। ভারতের অটোমোবাইল ক্ষেত্রে কী আছে এবং কী কী যোগ করতে হবে, তা নিয়ে সবপক্ষের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। কী কী বাড়তি যোগ করতে হবে, তা চিহ্নিত করেছে কেন্দ্র। সেই মোতাবেক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তহবিলের জন্য ২৫,৯৩৮ কোটি টাকার প্রয়োজন আছে। যাতে বুধবার অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা।

বন্ধ করুন