বাড়ি > বায়োস্কোপ > ড্রাইভের জন্য সুশান্তের সই করা চুক্তিপত্র পুলিশের হাতে তুলে দিলেন ধর্মার CEO,অপূর্ব মেহতা
সুশান্তের চুক্তিপত্র জমা পড়ল মুম্বই পুলিশের হাতে 
সুশান্তের চুক্তিপত্র জমা পড়ল মুম্বই পুলিশের হাতে 

ড্রাইভের জন্য সুশান্তের সই করা চুক্তিপত্র পুলিশের হাতে তুলে দিলেন ধর্মার CEO,অপূর্ব মেহতা

  • ২০১৭ সালে ড্রাইভের ঘোষণা সেরেছিলেন করণ জোহর। ফ্রাঞ্চাইসি ফিল্ম হিসাবেই ঘোষিত হয়েছিল ড্রাইভ। কী ছিল সেই চুক্তিপত্রে। খতিয়ে দেখবে মুম্বই পুলিশ। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে মঙ্গলবার জেরা করা হল করণ জোহরের ধর্মা প্রোডাকশনের সিইও অপূর্ব মেহতা। মঙ্গলবার সকালে অম্বোলি পুলিশ থানায় হাজিরা দেন অপূর্ব। ধর্মা প্রোডাকশনের সঙ্গে প্রয়াত অভিনেতার পেশাদার সম্পর্ক নিয়েই মূলত এদিন জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে অপূর্ব মেহতাকে। তিনঘন্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় অপূর্বকে। জানা গিয়েছে এদিন ধর্মা প্রোডাকশনের সঙ্গে ড্রাইভ ছবির জন্য স্বাক্ষর করা সুশান্তের চুক্তিপত্র মুম্বই পুলিশের হাতে তুলে দেন অপূর্ব। 

মৃত্যুর আগে সুশান্তের মুক্তিপ্রাপ্ত শেষ ছবি ড্রাইভ। ১লা নভেম্বর নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেয়েছিল এই ছবি। যা নিয়ে একবারেই সন্তুষ্ট ছিলেন না অভিনেতা। ড্রাইভ পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন তরুণ মনসুখানি। সরাসরি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ড্রাইভের মুক্তি নিয়ে করণ জোহরের সঙ্গে সুশান্তের মনোমালিন্যের খবর গত বছরেই সামনে এসেছিল। এমনকি ড্রাইভের প্রচার থেকে নিজেকে সম্পূর্ন দূরে সরিয়ে রাখেন সুশান্ত। এই ছবির প্রচারে একটা শব্দও খরচ করেননি অভিনেতা। উল্লেখ্য ড্রাইভ ঘোষণার সময় (১লা মার্চ ২০১৭) করণ জোহর জানিয়েছিলেন, ড্রাইভ একটি ফ্রাঞ্চাইসি ছবি হবে। চুক্তিপত্রেও কী উল্লেখ রয়েছে এই বিষয়টির? খতিয়ে দেখবে মু্ম্বই পুলিশ।

ড্রাইভের ঘোষণা সংক্রান্ত করণের টুইট 
ড্রাইভের ঘোষণা সংক্রান্ত করণের টুইট 

অপূর্ব মেহতার পাশাপাশি সমন পাঠানো হয়েছে করণ জোহরকেও। চলতি সপ্তাহেই পুলিশি জেরার মুখে পড়তে হবে জীবদ্দশায় মুক্তিপ্রাপ্ত সুশান্তের শেষ ছবির প্রযোজক করণ জোহরকে। আগেই বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে করণ জোহরের ম্যানেজার রেশমা শেট্টির। উল্লেখ্য গতকাল সান্তাক্রুজ থানায় জেরা করা হয় পরিচালক,প্রযোজক মহেশ ভাটকে। 

সোমবার পুলিশি জেরায় মহেশ ভাট জানিয়েছেন, সুশান্ত সিং রাজপুতকে সড়ক টুয়ের জন্য কোনওদিন কোনও লিড চরিত্রের অফার দেননি তিনি।কারণ সড়কের সিক্যুয়েল সড়ক টু। যেখানে শুরু থেকেই ঠিক ছিল মুখ্য চরিত্রে থাকবেন সঞ্জয় দত্ত।

১৪ ই জুন মুম্বইয়ের বান্দ্রার অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্তের দেহ। মুম্বই পুলিশের দাবি আত্মহত্যাই করেছেন অভিনেতা, এই মামলায় কোনওরকম ফাউল প্লে'র সম্ভাবনা এখনও খুঁজে পাননি তদন্তকারীরা।

বন্ধ করুন