বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ত্রিধাকে ‘ডেট’ করলে সকলকে জানিয়েই করতাম, এতে লুকোছাপার কিছু নেই: নিখিল জৈন
ত্রিধা-নিখিল (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
ত্রিধা-নিখিল (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

ত্রিধাকে ‘ডেট’ করলে সকলকে জানিয়েই করতাম, এতে লুকোছাপার কিছু নেই: নিখিল জৈন

'মুম্বই থেকে বন্ধু এলে তাঁর সঙ্গে কফি খেতে যাব না? যাওয়াটাই তো স্বাভাবিক'। ত্রিধার সঙ্গে কফি ডেটে যাওয়া প্রসঙ্গে সাফাই নুসরতের ‘স্বামী’র।

সদ্য তুতো বোনের বিয়ে নিয়ে ব্যস্ত থাকতে দেখা গিয়েছে নিখিলকে। বিয়ের অনুষ্ঠানে 'লুঙ্গি ডান্স' গানে জমিয়ে নাচতেও দেখা গেছে তাঁকে। দীর্ঘদিন পর পরিবারের সঙ্গে কাটানো সময় তাড়িয়ে তাড়িয়ে উপভোগ করছেন নিখিল। নুসরত জাহানের সঙ্গে ভাঙা সম্পর্কের যন্ত্রণা একটু একটু করে কাটিয়ে উঠছেন নিখিল জৈন। নুসরত-নিখিলের সম্পর্কের মাঝে তৃতীয় ব্যক্তি হিসাবে উঠে এসেছিল যশ দাশগুপ্তের নাম। নুসরত-যশের সম্পর্ক এখন সর্বজনবিদিত, কিন্তু হালে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে নিখিলের ভাঙা মনও নাকি জুড়ে দিয়েছে আরও এক বাঙালি অভিনেত্রী। হ্যাঁ, কথা হচ্ছে ত্রিধা চৌধুরীর। নিখিল জৈনের সঙ্গে অভিনেত্রী ত্রিধা চৌধুরীর বন্ধুত্ব দিন কয়েক ধরেই সংবাদ শিরোনামে। নিখিলের সঙ্গে সম্পর্কের ইকুয়েশন নিয়ে সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমে মুখ খুলেছেন ত্রিধা। 

এক ইংরাজি দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাত্কারে ত্রিধা স্পষ্ট জানিয়েছেন, ‘আমি নিখিলকে আশ্বস্ত করেছি, এই কঠিন পরিস্থিতি ওকে আরও বেশি মজবুত করবে’। এই বক্তব্য থেকেই সাফ দুজনের বন্ধুত্বর বন্ধনটা বেশ মজবুত। ত্রিধা জানিয়েছিলেন তাঁর স্কুলের সিনিয়র নিখিল, একই সুরে সুর মিলিয়ে নিখিল বললেন- ‘ ত্রিধা আমার স্কুলের জুনিয়ার, খুব ভালো বন্ধু আমরা। ও মুম্বই থেকে কলকাতা এলে দেখা করি, পুরোনো বন্ধুর সঙ্গে দেখা হলে তো ভালো লাগবেই’। 

সদ্যই কলকাতায় হাজির হয়েছিলেন ত্রিধা, অবশ্যই পেশাদার কারণে। কিন্তু ত্রিধার তিলোত্তমায় আসার মধ্যেই অনেকে অন্য গন্ধ পেয়েছেন, ইন্ডাস্ট্রিতে খবর গত কয়েকদিনে নাকি নিখিলের সঙ্গে সময় পেলেই ‘হ্যাং আউট’ করতে দেখা গেছে। এই প্রসঙ্গে নিখিলের সাফাই- ত্রিধাকে নিয়ে তিনি কফি খেতে গিয়েছিলেন এবং সেটা নিয়ে গসিপ খোঁজা অর্থহীন। নিখিল পালটা প্রশ্ন করে বসলেন- ‘মুম্বই থেকে বন্ধু এলে তাঁর সঙ্গে কফি খেতে যাব না? যাওয়াটাই তো স্বাভাবিক'। ত্রিধাকে ডেট করার প্রসঙ্গ উড়িয়ে নিখিল জানালেন,'ত্রিধার সঙ্গে আমার সম্পর্ক নিয়ে অনেকেই অনেক কিছু বলছে। আমি যদি ত্রিধাকে ‘ডেট’ করতাম, তা হলে সেটা সকলকে জানিয়েই করতাম, এতে লুকোছাপার কিছু নেই'। দুজনের এতোদিনের বন্ধুত্ব নিয়ে হঠাৎ কীসের এতো চর্চা তা বুঝে উঠতে পারছেন না নিখিল। নুসরতের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর আরও গভীর হয়েছে নিখিল-ত্রিধার বন্ধুত্ব, এই আলোচনা প্রসঙ্গে ত্রিধা এক সাক্ষাত্কারে জানিয়েছেন, ‘দেখুন আমাদের বন্ধুত্বটা কারুর বিচ্ছেদের পরিণতি নয়, আমরা স্কুলজীবন থেকে একে অপরকে চিনি। নিখিল আমার স্কুলের ডেপুটি হেড বয় ছিল, এবং অন্যতম ঠাণ্ডা মাথার ছেলে হিসাবে পরিচিতি ছিল ওর।স্কুলের প্রচুর অনুষ্ঠানে ও মডারেটরের ভূমিকায় থাকত, সেই সময় থেকেই আলাপ’। নিখিলকে নিয়ে তিনি যোগ করেন, 'নিখিলের জীবনে সম্প্রতি যে সমস্ত অনঅভিপ্রেত ঘটনা ঘটেছে তা ওকে মারাত্মকভাবে প্রভাবিত করেছে, এবং আমি শুধু চেয়েছি সেই সময় ওর পাশে থাকতে। আমি নিখিলকে আশ্বস্ত করেছি এই কঠিন পরিস্থিতি ওকে আরও মজবুত মানুষ হিসাবে গড়ে তুলবে'।

বন্ধ করুন