বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কান্দাহারে হেলিকপ্টার থেকে ঝুলতে থাকা সেই ব্যক্তি আদতে তালিব পতাকা লাগাচ্ছিল!
হেলিকপ্টার থেকে ঝুলতে থাকা সেই ব্যক্তি (ছবি সৌজন্যে টুইটার)
হেলিকপ্টার থেকে ঝুলতে থাকা সেই ব্যক্তি (ছবি সৌজন্যে টুইটার)

কান্দাহারে হেলিকপ্টার থেকে ঝুলতে থাকা সেই ব্যক্তি আদতে তালিব পতাকা লাগাচ্ছিল!

  • সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় একটি ভিডিয়ো, যাতে দেখা যায় যে একটি মার্কিন ব্ল্যাকহক থেকে ঝুলছে এক ব্যক্তি।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় একটি ভিডিয়ো, যাতে দেখা যায় যে একটি মার্কিন ব্ল্যাকহক থেকে ঝুলছে এক ব্যক্তি। ঘটনাটি কান্দাহারের বলে দাবি করা হয়। সেই ঘটনার পরই সোশ্যাল মিডিয়াতে তালিবানের অত্যাচারের নিদর্শন হিসেবে তুলে ধরা হয় ভিডিয়োটি। তবে রিপোর্ট অনুযায়ী সেই ঝুলন্ত ব্যক্তি আদতে এখটি তালিবানি পতাকা লাগানোর চেষ্টা করছিলেন একটি বহুতলের উপর। যদিও শেষ পর্যন্ত সেই ব্যক্তি সফল হননি। তবে ভাইরাল ভিডিয়োতে থাকা সেই ঝুলন্ত ব্যক্তি নাকি জীবিত এবং সুস্থ রয়েছেন।

তালিবানের কেউ হেলিকপ্টার চালানোর প্রশিক্ষণ পায়নি। তাই সোশ্যাল মিডিয়াতে এমন যেকোনও ভিডিয়োই ভাইরাল হয়ে যাচ্ছে যাতে তালিবানকে হেলিকপ্টার চালাতে দেখা যাচ্ছে। আর কান্দাহারের এই ভিডিয়োতে হেলিকপ্টার থেকে এক ব্যক্তিকে ঝুলতে দেখা যাওয়ায় এই ভিডিয়োটি নিয়ে আগ্রহ বাড়তে থাকে সাধারণের। এরপরই এই ভিডিয়োটি নিয়ে টুইট করেন আফগান সাংবাদিক বিলাল সরওয়ারি।

বিলাল টুইটে দাবি করেন এই হেলিকপ্টারটি কোনও তালিবান না, বরং ওড়াচ্ছিলেন এক আফগান সেনার প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত পাইলট। সেই পাইলট আমেরিকা এবং সংযুক্ত আরব আমির শাহিতে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। সেই পাইলট নাকি বিলালের পরিচিত এবং তিনি নিজে বিলালকে এই বিষয়ে জানান। পাশাপাশি ঝুলতে থাকা সেই ব্যক্তি এক তালিবানি জঙ্গি ছিল বলে নাকি সেই পাইট জানিয়েছেন বিলালকে। সেই তালিব জঙ্গি আদতে এক বহুতলের উফর তালিবানি পতাকা লাগানোর চেষ্টা করছিল। তবে তাতে সে বিফল হয়।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ ২০ বছর আফগানিস্তানে সাংবাদিকতা করা বিলাল বর্তমানে আফগানিস্তান ছেড়ে শরণার্থী হিসেবে কাতারে রয়েছেন। তালিবানি অত্যাচারের আশঙ্কায় কাঁদতে কাঁদতে পরিবার নিয়ে আফগানিস্তান ছাড়েন বিলাল।

বন্ধ করুন