বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Ajit Pawar Freak Lift Accident: পাঁচতলা থেকে আচমকা পতন! অকল্পনীয় লিফট দুর্ঘটনায় অল্পের জন্য বাঁচলেন অজিত পাওয়ার

Ajit Pawar Freak Lift Accident: পাঁচতলা থেকে আচমকা পতন! অকল্পনীয় লিফট দুর্ঘটনায় অল্পের জন্য বাঁচলেন অজিত পাওয়ার

মহারাষ্ট্রের বিরোধী দলনেতা অজিত পাওয়ার (PTI)

অজিত পাওয়ার সহ ডাক্তার এবং লিফটে থাকা পুলিশ সদস্যদের নিরাপদে উদ্ধার করা হয়। অজিত পাওয়ার জানান, দুর্ঘটনার বিষয়ে কাউকে জানানো হয়নি তখন। তবে দুর্ঘটনাস্থল থেকে বাড়ি ফিরে সোজা মাকে প্রণাম করেন এনসিপি নেতা। 

এক অভাবনীয় দুর্ঘটনায় অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির নেতা তথা মহারাষ্ট্র বিধানসভায় বিরোধী দলনেতা অজিত পাওয়ার। মহারাষ্ট্রের পুণেতে একটি উদ্ভট লিফট দুর্ঘটনার মুখে পড়েন তিনি। জানা গিয়েছে, শহরের হার্দিকর হাসপাতালের পাঁচতলা থেকে লিফটে উঠেছিলেন অজিত পাওয়ার। সেই সময় লিফটটি সেকেন্ডে নীচে পড়ে যায়। অজিত পাওয়ার সহ আরও তিনজন সেই সময় লিফটে ছিলেন। তবে অল্পের জন্য দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে যান সকলেই। অক্ষত অবস্থায় লিফট থেকে বেরিয়ে আসেন তাঁরা। অবশ্য এই দুর্ঘঘটনাটি বেশ গতসপ্তাহে ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। (আরও পড়ুন: NCP সাংসদ সুপ্রিয়ার শাড়িতে লাগল আগুন, এরপর কী করলেন শরদ কন্যা? ভাইরাল ভিডিয়ো)

অজিত পাওয়ার রবিবার বারামতির একটি অনুষ্ঠানে এই দুর্ঘটনাটি বর্ণনা করেছিলেন। সেখানে তিনি বলেন, তিনি পুনেতে একটি হাসপাতাল ভবন উদ্বোধন করতে গিয়েছিলেন। সেই সময় দুর্ঘটনাটি ঘটেছিল। তিনি বলেন, 'দুর্ঘটনার সময় আমার সঙ্গে লিফটে ৯০ বছর বয়সি চিকিৎসক হার্দিকর উপস্থিত ছিলেন। পাঁচতলায় লিফটে ওঠার পর হঠাৎই বিদ্যুৎ চলে যায়। কিছু বোঝার আগেই লিফট পাঁচতলা থেকে মাটিতে পড়ে যায়। অবশেষে সতর্কতা অবলম্বন করে লিফটের দরজা ভেঙে ফেলা হয়।' এনসিপি নেতা বলেন, 'আনুষ্ঠানিকভাবে হাসপাতাল উদ্বোধন করার পর, আমি চারতলা থেকে পাঁচতলায় ওঠার জন্য লিফটে উঠেছিলাম। সেই সমযই হঠাৎ বিদ্যুৎ বিভ্রাট হয়, যার কারণে আমরা যে লিফটে ছিলাম সেটি বিধ্বস্ত হয়। দুর্ঘটনাটি মারাত্মক হতে পারত। তবে সৌভাগ্যবশত, আমার কিছুই হয়নি। যদিও ডাঃ হার্দিকর সামান্য আঘাত পেয়েছেন।'

আরও পড়ুন: ভয়াবহ দুর্ঘটনা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কনভয়ে, গাড়ি উল্টে গিয়ে পড়ল খালে

পরে অজিত পাওয়ার সহ ডাক্তার এবং লিফটে থাকা পুলিশ সদস্যদের নিরাপদে উদ্ধার করা হয়। অজিত পাওয়ার জানান, দুর্ঘটনার বিষয়ে কাউকে জানানো হয়নি তখন। তিনি বলেন, 'এই দুর্ঘটনার বিষয়ে কাউকে জানানো হলে গতকালই সব চ্যানেলে ব্রেকিং নিউজ চালিয়ে দিত। তবে বারামতির লোকেরা আমার আপন। তাই তাঁদের কাছে এই ঘটনাটির কথা লুকিয়ে রাখতে পারলাম না।' অজিত পাওয়ার আরও জানান, দুর্ঘটনার পর পুণে থেকে বারামতি ফিরেই বাড়িতে গিয়ে নিজের মায়ের আশীর্বাদ নেন তিনি।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন