বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Daud Ibrahim's Second Marriage: প্রথম পক্ষের স্ত্রীকে নিয়ে মিথ্যে বলে দ্বিতীয় বিয়ে দাউদ ইব্রাহিমের, বিস্ফোরক ভাগ্নে

Daud Ibrahim's Second Marriage: প্রথম পক্ষের স্ত্রীকে নিয়ে মিথ্যে বলে দ্বিতীয় বিয়ে দাউদ ইব্রাহিমের, বিস্ফোরক ভাগ্নে

প্রথম পক্ষের স্ত্রীকে নিয়ে মিথ্যে বলে দ্বিতীয় বিয়ে দাউদের

দাউদ ইব্রাহিমরা মোট ৫ ভাই এবং ৪ বোন। দাউদের বোনদের মধ্যে অন্যতম হলেন হাসিনা পার্কার। সেই হাসিনা পার্কারেরই ছেলে আলি শাহ মামা দাউদকে নিয়ে বিস্ফোরক সব দাবি করেছেন এআইএ তদন্তকারীদের সামনে।

দ্বিতীয় বার বিয়ে করেছে ভারতের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ তালিকার শীর্ষে থাকা আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন দাউদ ইব্রাহিম। দাউদের ভাগ্নে আলি শাহ এমনটাই জানিয়েছেন তদন্তকারীদের। দাউদের দ্বিতীয় স্ত্রী পাকিস্তানি নাগরিক বলে জানান আলি। এদিকে আলি আরও জানান, প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে এখনও বিচ্ছেদ হয়নি দাউদের। যদিও দাউদ নাকি দাবি করেছিল, প্রথম পক্ষের স্ত্রীকে সে ডিভোর্স দিয়েছে। উল্লেখ্য, দাউদ ইব্রাহিমরা মোট ৫ ভাই এবং ৪ বোন। দাউদের বোনদের মধ্যে অন্যতম হলেন হাসিনা পার্কার। সেই হাসিনা পার্কারেরই ছেলে হল আলি শাহ। গতবছর হাসিনার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছিলেন এনআইএ তদন্তকারীরা। (আরও পড়ুন: 'থোড় বড়ি খাড়া...', ভারতের উদ্দেশে শান্তি বার্তার মাঝে শর্ত গুঁজল পাকিস্তান)

জানা গিয়েছে, দাউদের প্রথম স্ত্রী মৈজাবিন এখনও জীবিত। মৈজাবিন হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে এখনও ভারতে থাকা দাউদের এবং নিজের আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেন বলে জানান আলি শাহ। ২০২২ সালের সালের জুলাই মাসে দুবাইয়ে মৈজাবিনের সঙ্গে দেখাও করেছেন আলি। আলির স্ত্রীর সঙ্গেও মৈজাবিন হোয়াটসঅ্যাপে কথা বলেন বলে জানান আলি। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার কাছে দাউদের পরিবারের তথ্য দেন আলি। আলি দাবি করেন, দাউদ সবার কাছে দাবি করেছে যে দ্বিতীয় বিয়ের জন্য প্রথম স্ত্রী মৈজাবিনকে ডিভোর্স দিয়েছে। তবে সেটা সত্যি নয় বলে তার দাবি। মৈজাবিনের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ না করেই দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন দাউদ। দাউদ ও মৈজাবিনের তিন মেয়ে এক ছেলে রয়েছে রয়েছে। তাদের মধ্যে এক মেয়ে - মারুখের বিয়ে হয়েছে জাভেদ মিয়াঁদাদের ছেলে জুনেদের সঙ্গে।

এদিকে ভাগ্নে জানান, দাউদ নিজের ঠিকানাও বদলে ফেলেছে। বর্তমানে করাচির আবদুল্লাহ গাজি বাবা দরগার পিছন দিকে রহিম ফাকিরের কাছে থাকে সে। এদিকে এনআইএ জানতে পেরেছে, দাউদ ইব্রাহিম একটি বিশেষ দল গঠন করছে। তাবড় নেতা, ধনী ব্যবসায়ীদের উপর হামলা চালানোর ছক কষে থাকতে পারে দাউদের এই বিশেষ দল। উল্লেখ্য, এনআইএ দাউদ ইব্রাহিম এবং তাঁর ঘনিষ্ঠদের বিরুদ্ধে জঙ্গি হামলায় আর্থিক সাহায্য নিয়ে তদন্ত করছে। এই মামলায় কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে এনআইএ। মামলায় এনআইএ একটি চার্জশিট পেশ করে। তাতেই আলি শাহর এই বয়ান প্রকাশ্যে এসেছে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন