বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > GT vs SRH IPL 2022: ভালো খেললেন ঋদ্ধিমান, চর্চা হল আর একজনকে নিয়ে, উত্তাল হল নেটদুনিয়া
ঋদ্ধিমান সাহা। (ছবি সৌজন্যে আইপিএল)
ঋদ্ধিমান সাহা। (ছবি সৌজন্যে আইপিএল)

GT vs SRH IPL 2022: ভালো খেললেন ঋদ্ধিমান, চর্চা হল আর একজনকে নিয়ে, উত্তাল হল নেটদুনিয়া

  • আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে রান তাড়া করতে নেমে ঢিমেতালে শুরু করেন গুজরাটের ওপেনার শুভমন গিল। একেবারেই ছন্দে ছিলেন না তিনি। উলটোদিকে, মার্কো জানসেনদের বাউন্ডারির বাইরে ফেলছিলেন ঋদ্ধিমান সাহা। 

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত খেললেন ঋদ্ধিমান সাহা। তবে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এলেন সাংবাদিক বোরিয়া মজুমদার। রীতিমতো উত্তাল হয়ে উঠল নেটদুনিয়া। ছড়িয়ে পড়ল অসংখ্য মিম।

বুধবার আইপিএলে টসে হেরে টসে জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন গুজরাট টাইটানসের অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া। নির্ধারিত ২০ ওভারে ছ'উইকেটে ১৯৫ রান তোলেন কেন উইলিয়ামসন। সেই রান তাড়া করতে নেমে ঢিমেতালে শুরু করেন গুজরাটের ওপেনার শুভমন গিল। একেবারেই ছন্দে ছিলেন না তিনি।

উলটোদিকে, মার্কো জানসেনদের বাউন্ডারির বাইরে ফেলছিলেন ঋদ্ধি। গিল এবং হার্দিক আউট হয়ে গেলেও গুজরাটকে এগিয়ে যেতে থাকেন। শেষপর্যন্ত ৩৮ বলে ৬৮ রানে আউট হয়ে যান। তারইমধ্যে ঋদ্ধির ইনিংস নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অসংখ্য মিম ছড়িয়ে পড়ে। তাতে চর্চায় উঠে আসেন বোরিয়া।

কী হয়েছিল ঋদ্ধি এবং বোরিয়ার বিষয়টি?

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি রাতের দিকে টুইটারে একটি হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাটের স্ক্রিনশট পোস্ট করেন ঋদ্ধি। সঙ্গে লেখেন, 'ভারতীয় ক্রিকেটের প্রতি আমার যাবতীয় অবদানের পর তথাকথিত শ্রদ্ধেয় সাংবাদিকের থেকে এরকম বিষয়ের সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এই পর্যায় নেমে গিয়েছে সাংবাদিকতা।'

আরও পড়ুন: Boria Majumdar To Be Banned: ঋদ্ধিকে হুমকি দিয়ে ২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হচ্ছেন বোরিয়া, ICC-কেও চিঠি দেবে BCCI

রাত ১০ টা ১৮ মিনিটে এক নম্বর থেকে আসা হোয়্যাটসঅ্যাপ মেসেজে লেখা আছে, 'আমার সঙ্গে একটা ইন্টারভিউ কর। (তোমার জন্য) ভালো হবে।' এক মিনিট পরেই আরও একটি মেসেজ এসেছে। তাতে বলা হয়, 'ওরা (বোর্ড) একজন উইকেটকিপার বেছে নিয়েছে, যে সেরা উইকেটকিপার। তুমি ১১ জন সাংবাদিককে বেছে নেওয়ার চেষ্টা করছ, যাঁরা আমার কাছে সেরা নয়। এমন কাউকে বেছে নাও, যে তোমায় সবথেকে বেশি সাহায্য করতে পারবে।' রাত ১০ টা ৪৩ মিনিটের একটি মেসেজে বলা হয়, 'তুমি ফোন করলে না। আমি কখনও তোমার ইন্টারভিউ নেব না। আমি একেবারে সহজে অপমান মেনে নিই না এবং এটা আমি মনে রাখব। এটা তোমার করা উচিত হয়নি।' তারইমধ্যে ঋদ্ধির পোস্ট করা স্ক্রিনশটে সন্ধ্যা ৭ টা ৩০ মিনিটে হোয়্যাটসঅ্যাপ কলের বিষয়টি ধরা পড়েছে। যা মিসড কল হয়ে গিয়েছিল।

সেই ‘হুমকির’ স্ক্রিনশট পোস্ট করলেও কোনও সাংবাদিকের নাম প্রকাশ করেননি ঋদ্ধি। পরে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। জনসমক্ষে কারও নাম না জানালেও বোর্ডের পুরো বিষয়টি খুলে জানিয়েছেন বলে স্পষ্টভাবে বলে দেন ঋদ্ধি। তার কিছুক্ষণ পরেই টুইটার ভিডিয়ো পোস্ট করেন বোরিয়া।

আরও পড়ুন: Whatsapp-এ এটা হয় না!ঋদ্ধির বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে নেটিজেনদের প্রশ্নের মুখে বোরিয়া

কী বলেছিলেন বোরিয়া?

নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় করা এক পোস্টে নিজেই সেই মেসেজ পাঠানোর কথা স্বীকার করেন বোরিয়া। তবে ঋদ্ধিমানের বিরুদ্ধে তাঁর মেসেজের দিনক্ষণ বদলে তাঁর বিরুদ্ধে অযাচিত আরোপ লাগানোর পালটা অভিযোগ তোলেন বোরিয়া। তিনি সাফ জানিয়ে দেন, ঋদ্ধিমানকে ১৩ ফেব্রুয়ারি মেসেজ করেছিলেন, যেটা ঋদ্ধি তাঁর ছয়দিন পর ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পর আপলোড করেন। এমনকী মেসেজে ঋদ্ধিকে তিনি কল করার কথা সম্পূর্ণ অস্বীকার করে জানান, ১৩ ফেব্রুয়ারির পরে তিনি ঋদ্ধির সঙ্গে আর কোনওরকম যোগাযোগ করার চেষ্টাও করেননি। ঋদ্ধি স্রেফ সহানুভূতি পাওয়ার জন্যই এই মেসেজ এতদিন পরে আপলোড করেন। ১৩ ফেব্রুয়ারি পূর্ব পরিকল্পিত দিনক্ষণ অনুযায়ী ঋদ্ধি তাঁকে সাক্ষাৎকার দেওয়া তো দূর, তাঁর ফোন পর্যন্ত ধরেননি। সেইজন্যেই তিনি রেগে গিয়েছিলেন। সেইসঙ্গে ঋদ্ধির বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করারও হুমকি দেন বোরিয়া।

বন্ধ করুন