বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > IPL 2022: গোল্ডেন ডাকের পর কেন হাসছিলেন, অকপটে জানালেন কোহলি
বিরাট কোহলি।

IPL 2022: গোল্ডেন ডাকের পর কেন হাসছিলেন, অকপটে জানালেন কোহলি

  • বারবার গোল্ডেন ডাক করে আউট হওয়াটাও কোহলির মতো ক্রিকেটারের কাছে নিঃসন্দেহে বড় চিন্তার কারণ। অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, কোহলি ফুরিয়ে গিয়েছেন। তিনি এই বছর তিনটি গোল্ডেন ডাকের দু'টি করেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে। এবং একবার লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিরুদ্ধে।

এই বছর আইপিএল বিরাট কোহলির কাছে বিভীষিকার হয়ে উঠেছে। বারবার হতাশাজনক পারফরম্যান্স। এখনও পর্যন্ত ১১টি ম্যাচ খেলে তিনি মাত্র ১টিই হাফসেঞ্চুরি করেছেন। তিন বার গোল্ডেন ডাক করে ফেলেছেন। এই ১১টি ইনিংসে বিরাট কোহলি ১৯.৬৩ গড়ে, ১১১.৩৪ স্ট্রাইকরেটে মাত্র ২১৬ রান করেছেন।

বারবার গোল্ডেন ডাক করে আউট হওয়াটাও কোহলির মতো ক্রিকেটারের কাছে নিঃসন্দেহে বড় চিন্তার কারণ। অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, কোহলি ফুরিয়ে গিয়েছেন। তিনি এই বছর তিনটি গোল্ডেন ডাকের দু'টি করেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে। এবং একবার লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিরুদ্ধে। এই নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইছে। আর প্রথম বলে শূন্য করে সাজঘরে ফেরার সময়ে কোহলির হাসি মুখের ছবি নিয়েও নেটিজেনরা রীতিমতো ক্ষোভ উগড়াচ্ছেন।

এ বার সব কিছু নিয়ে নিজের নীরবতা ভাঙলেন কিং কোহলি। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর একটি ভিডিয়ো আপলোড করেছে। সেখানে কোহলিকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘প্রথম বলে ডাক... ওহ ভগবান। আমার কেরিয়ারে এটা কখনও আগে ঘটেনি। তাই আমি হাসছিলাম। কারণ সেই সময়ে আমার মনে হচ্ছিল, এটাও আমার দেখা বাকি ছিল। এতদিনের কেরিয়ারে মোটামুটি সবকিছুই দেখে ফেললাম।’

আরও পড়ুন: ‘ওর নিজের যোগ্যতার উপরে সন্দেহ রয়েছে’, রানে ফিরতে কোহলিকে পরামর্শ পাক প্রাক্তনীর

এই খারাপ ফর্ম কাটিয়ে ওঠার জন্য কোহলিকে প্রাক্তন তারকারা অনেক পরামর্শ এবং উপদেশ দিচ্ছেন। যার মধ্যে ভারতের প্রাক্তন কোচ এবং কোহলির খুব ঘনিষ্ঠ রবি শাস্ত্রীও রয়েছে। তিনি প্রাক্তন ভারত অধিনায়ককে বিরতিতে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এছাড়াও, কোহলির ফর্ম নিয়েও চলছে তীব্র সমালোচনা।

সকলকে উদ্দেশ্য করে কোহলি বলেছেন, ‘আমার মনে কী চলছে, সেটা কেউ বুঝবে না। আমার বিষয়টা আমিই জানি। তারা তো আমার জীবনটা বাঁচতে পারে না। এই মুহূর্তগুলো তাদের ভুগতে হচ্ছে না। বাইরের আওয়াজ কী করে বন্ধ করব? হয় টিভি মিউট করে দিতে হবে বা লোকে যা বলছে, কোনও কিছুই শোনার দরকার নেই বা সেগুলোকে গুরুত্ব দেওয়ার প্রয়োজন নেই। আমি কিন্তু তাই-ই করছি।’

বন্ধ করুন